1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
৩ ঘণ্টার প্যারোলে মুক্তি পেয়ে সন্তানের জানাজায় যুবদল নেতা - ২৪ ঘন্টাই খবর

৩ ঘণ্টার প্যারোলে মুক্তি পেয়ে সন্তানের জানাজায় যুবদল নেতা

  • আপডেট করা হয়েছে: শনিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ১৪২ বার পঠিত

খুলনায় তিন ঘণ্টার প্যারোলে মুক্তি পেয়ে সন্তানের জানাজায় অংশ নিয়েছেন ৩১ নং ওয়ার্ড যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী পাটোয়ারী। তাকে হাতকড়া পরিয়ে তার বাড়ির এলাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

খুলনা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক শফিকুল আলম মনা বলেন, নগরীর টিঅ্যান্ডটি অফিসের সামনে ককটেল বিস্ফোরণের কাল্পনিক অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় গত ৮ ডিসেম্বর পুলিশ ইয়াকুবকে গ্রেপ্তার করে। ঘরে সন্তান সম্ভাবা স্ত্রীর সামনে থেকে ‘মিথ্যা’ অভিযোগে দায়েরকৃত গায়েবি মামলায় গ্রেপ্তার করা হয় যুবদল নেতা ইয়াকুবকে।

দুশ্চিন্তায় সন্তান সম্ভাবা স্ত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং ১৬ ডিসেম্বর সন্তান প্রসব করেন। ওই সময় থেকেই নবজাতক শিশুটি অসুস্থ থাকায় তাকে সিসিইউতে ভর্তি রাখা হয়। ২০ দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকার পর বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) রাতে মারা যায় শিশুটি। শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) বাদ জুমা ইয়াকুব পাটোয়ারির শিশু সন্তানের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন বলেন, শুক্রবার দুপুরে আইনজীবীর মাধ্যমে তিন ঘণ্টার জন্য যুবদল নেতাকে প্যারোলে মুক্তি দেয়া হলেও তার হাতে হাতকড়া পড়িয়ে রাখা হয়। নেতাকর্মীদের অনুরোধে জুমার নামাজ ও জানাজা নামাজের সময় পুলিশ তার হাতকড়া খুলে দেয়। তিনি বলেন, হাতকড়া পড়িয়ে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া দেখে পরিবারের সদস্যদের মতো আমরাও ব্যথিত হয়েছি।

তিন ঘণ্টার জন্য প্যারোলে মুক্তি পেয়ে যুবদল নেতা ইয়াকুব আলী পাটোয়ারী তার ছেলের নামাজে জানাজায় শরীক হন। লবণচরা এলাকার হাজী আব্দুল মালেক মসজিদ সংলগ্ন কবরস্থানের সামনে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে দুপুর একটায় খুলনা জেলা কারাগার থেকে হাতকড়া পরা অবস্থায় ইয়াকুব আলী পাটোয়ারীকে পুলিশ ভ্যানে করে হাজী মালেক মসজিদে নেয়া হয়।

সেখানে উপস্থিত বিএনপি নেতাকর্মীদের অনুরোধে পুলিশ ইয়াকুবের হাতকড়া খুলে দেয়। জুমার নামাজ আদায়ের পর জানাজায় শরীক হন ও পরবর্তীতে সন্তানের দাফনে অংশ নেন তিনি। পুনরায় তাকে হাতকড়া পরিয়ে জেলহাজতে নেয়ার সময় তার ৪র্থ শ্রেণীতে পড়ুয়া শিশুকন্যা ত্বনীর কান্নায় পরিবেশ ভারী হয়ে ওঠে। খুলনা জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ আবু হোসেন বাবু বলেন, পুলিশের দায়ের করা মামলাটি ছিলো গায়েবি ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com