1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
১০ দিন আগে ঢাকায় ঢোকার বার্তা, বাধা দিলে লড়াই - ২৪ ঘন্টাই খবর

১০ দিন আগে ঢাকায় ঢোকার বার্তা, বাধা দিলে লড়াই

  • আপডেট করা হয়েছে: সোমবার, ২১ নভেম্বর, ২০২২
  • ৭৫ বার পঠিত

ঢাকায় বিভাগীয় সমাবেশকে (১০ ডিসেম্বর) কেন্দ্র করে কয়েক স্তরের পরিকল্পনা সাজাচ্ছে বিএনপি। সমাবেশে পাঁচ লক্ষাধিক লোক সমাগম করে বিএনপি শরিকদের নিয়ে ঢাকা থেকে

ঘোষণা দিতে চায় যুগপৎ আন্দোলনের। এজন্য সমাবেশের স্থান নিয়ে কয়েকটি বিকল্প ভাবা হয়েছে দলের পক্ষ থেকে। যদিও নয়াপল্টনে বিভাগীয় গণসমাবেশ করার প্রস্তুতি নিয়ে এগোচ্ছি দলটি।

নেতাকর্মীদের সমাবেশে উপস্থিতি নিশ্চিত করতে প্রয়োজনে ১০ দিন আগে থেকে ঢাকায় ঢোকার বার্তা দেওয়া হয়েছে। বিএনপি শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে চায় জানিয়ে বাধা দিলে ‘লড়াই’ হবে বলে হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন দলের নীতিনির্ধারক পর্যায়ের নেতারা।

বিএনপির একটি সূত্র বলছে, ঢাকার বিভাগীয় গণসমাবেশ সামনে রেখে এরই মধ্যে ব্যবস্থাপনা, প্রচার, অভ্যর্থনা, শৃঙ্খলাসহ কয়েকটি উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ২৫ নভেম্বর নাগাদ এসব কমিটি চূড়ান্ত হবে। প্রস্তুতি কমিটির মূল দায়িত্বে রয়েছেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান এবং উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মীর সমন্বয়ে তৈরি হচ্ছে স্বেচ্ছাসেবক টিম। সমাবেশে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় সিসিটিভি ক্যামেরা ও ড্রোন থাকবে। সমাবেশ থেকে বিক্ষোভ, মিছিল, পথসভা, লংমার্চ, হরতাল, অবরোধসহ সিরিজ কর্মসূচি আসতে পারে। এই কর্মসূচির মাধ্যমে বিএনপি শরিকদের সঙ্গে যুগপৎ আন্দোলনের যাত্রা শুরু করবে।

সূত্র জানায়, সরকারের পক্ষ থেকে নানান প্রতিবন্ধকতা আসবে ধরে নিয়ে সারাদেশ থেকে সমাবেশের ১০ দিন আগে থেকেই ঢাকায় এসে অবস্থান করতে বলা হয়েছে নেতাকর্মীদের। এক্ষেত্রে ঢাকায় এসে গ্রেফতার এড়িয়ে আত্মীয়ের বাসা ও হোটেলে

সতর্কাবস্থায় থাকা, যাদের থাকার জায়গা নেই তাদের নেতাকর্মীদের বাসা-বাড়িতে রাখার জন্য বলা হয়েছে। প্রয়োজনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের থাকার ব্যবস্থা করা হবে। কী উপায়ে কর্মীদের ঢাকায় আনা হবে সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট নেতাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ডিসেম্বরের ৫ তারিখ স্থায়ী কমিটির সভায় সব বিষয় চূড়ান্ত হবে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ সেপ্টেম্বর দেশের ১০ সাংগঠনিক বিভাগে সমাবেশের ঘোষণা দেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এর মধ্যে গত ৮ অক্টোবর চট্টগ্রাম, ১৫ অক্টোবর ময়মনসিংহ, ২২ অক্টোবর খুলনা, ২৯ অক্টোবর রংপুর, ৫

নভেম্বর বরিশাল, ১২ নভেম্বর ফরিদপুর, ১৯ নভেম্বর সিলেটে সমাবেশ হয়েছে। এছাড়া আগামী ২৬ নভেম্বর কুমিল্লা, ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীতে এবং ঢাকায় আগামী ১০ ডিসেম্বর সমাবেশ করবে বিএনপি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com