1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
শত চেষ্টার পর জয়ের দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ - ২৪ ঘন্টাই খবর

শত চেষ্টার পর জয়ের দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ

  • আপডেট করা হয়েছে: বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২
  • ১১৮ বার পঠিত

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে জয়ের দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ। ৯ উইকেটে ১০৫ রান নিয়ে ব্যাট করছে রোডেশীয়রা। ১৪ রান নিয়ে রিচার্ড এনগারাভা ও ১ রান নিয়ে ব্যাট করছেন ভিক্টর নাইয়াচি। জয়ের জন্য

টাইগারদের দরকার এক উইকেট। হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে ২৫৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দুই ওভার শেষে ৭ রান তুলতেই দুই উইকেট হারিয়ে ফেলে জিম্বাবুয়ে। হাসান মাহমুদ উদ্বোধনী ওভার করতে এসে এলবিডব্লিউর

ফাঁদে ফেলেন কাইতানোকে। ৫ বল খেলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি এই ব্যাটার। হাসানের পর দ্বিতীয় ওভারেই আক্রমণে স্পিনার নিয়ে আসেন অধিনায়ক তামিম। আস্থার প্রতিদানও দেন অফস্পিনার মিরাজ। ১ রান করা অপর

ওপেনার মারুমানিকে বোল্ড করেন তিনি।তাইজুল ইসলাম প্রথম ওভার করতে এসে ফিরিয়ে দেন প্রথম ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান ইনোসেন্ট কাইয়াকে। মাত্র ১০ রান করেই বিদায় নেন তিনি। এরপর ফিরিয়ে দেন ১৩ রান করা টনি

মুনিয়োঙ্গাকে। অভিষিক্ত এবাদত হোসেন বল হাতে পেয়েই নায়ক বনে যান। নিজের দ্বিতীয় ওভারেই জোড়া উইকেট শিকার করেন তিনি। তার শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন মাধভেরে ও বিপজ্জনক

সিকান্দার রাজা। ব্যক্তিগত ১৫ রানে লুক জংউইয়ের উইকেট নেন মুস্তাফিজুর রহমান। অষ্টম ব্যাটার হিসেবে তার শিকারে পরিণত হন ক্লিভ মাদান্দে। ফেরার আগে তিনি করেন ২৪ রান। ফিজ শিকার করেন

ব্রাড ইভান্সকেও। এর আগে সবকটি উইকেট হারিয়ে ২৫৬ রান করে বাংলাদেশ। উদ্বোধনী জুটিতে ৪১ রান আসার পর বিদায় নেন তামিম ইকবাল। ৩০ বলে তিনি করেন ১৯ রান। তার ইনিংসে

ছিল ৩টি চারের মার। অধিনায়কের বিদায়ের পরের ওভারের প্রথম বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেছেন নাজমুল হোসেন শান্তও। গোল্ডেন ডাক মেরে নিজের ব্যর্থতার ধারাবাহিকতা বজায় রাখলেন

এই ব্যাটার। শান্তর পর ইভান্সের সে ওভারেই লাফিয়ে ওঠা বলে অহেতুক শট খেলে ক্যাচ তুলে দেন মুশফিকুর রহিমও। শূন্য রানে অযথা উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে এসে দলকে বিপদে ফেলেন এই অভিজ্ঞ

ব্যাটার। আকস্মিক ছন্দপতনে ৩ রানে ৩ উইকেট হারানো বাংলাদেশ তখন বিপদে। তবে দারুণ ব্যাটিংয়ে দিশা দেখাচ্ছিলেন এনামুল হক বিজয়। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে ভালো একটা জুটি গড়েছিলেন

এই ব্যাটার। কিন্তু বিদায় নেন নিরীহ এক বলেই। স্ট্যাম্পের বাহিরের নিরীহ দর্শন এক বলে খোঁচা মেরে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেয়ার আগে ৭১ বলে ৬ চার ও ৪ ছয়ে ৭৬ রান করেন তিনি। বিজয়ের

সঙ্গে জুটি বেঁধে সামাল দেয়া মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ব্যাট করছিলেন টেস্টের মেজাজে। তবে সাবধানী ব্যাটিংয়েও রক্ষা হলো না সাইলেন্ট কিলারের। বোল্ড হয়ে যান রিয়াদ। এনগারাভার

বলে বোল্ড হয়ে শেষ হয় রিয়াদের সংগ্রামী ইনিংস। ৬৯ বলে ৩ চারের মারে ৩৯ রান করেন রিয়াদ। রিয়াদের সঙ্গে জুটি গড়ে চ্যালেঞ্জিং টার্গেট এনে দিতে লড়ছিলেন আফিফ। তরুণ কাঁধে

সামলাতে চেষ্টা করেছেন দলের ভার। বাংলাদেশের ইনিংসের শেষ পর্যন্ত লড়ে গেছেন চ্যালেঞ্জিং একটা সংগ্রহ এনে দিতে। শেষ পর্যন্ত ৮১ বলে ৬ চার ২ ছক্কায় অপরাজিত থাকেন ৮৬ রানে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com