1. skarman0199094@gmail.com : Sk Arman : Sk Arman
  2. atikurrahman0.ar@gmail.com : MD : MD Atikurrahaman
  3. alamran777777@gmail.com : Md. Imran : Md. Imran
  4. Mijankhan298@gmail.com : Md Mijankhan : Md Mijankhan
  5. mbbrimon@gmail.com : MBB Rimon : MBB Rimon
  6. rujina666666@gmail.com : Rujina Akter : Rujina Akter
  7. shamimulislamtanvirrana@gmail.com : MD Tanvir Islam : MD Tanvir Islam
  8. shafiulislamtanzil@gmail.com : Safiul Islam Tanzil : Safiul Islam Tanzil
 

মুসলিম ভাইবোনেরা বুঝে গিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী উপকারই করেন

  • প্রকাশিত: ১১:০২ am | শুক্রবার ১৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৩৫ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা: বরাবরই বাংলায় নির্বাচনে সংখ্যালঘু ভোট নিয়ে চর্চা চলে। এবারের বিধানসভা নির্বাচনেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

বাংলায় পঞ্চম দফার ভোটের আগে এই সংখ্যালঘু ভোট নিয়েই কার্যত এবার মন্তব্য করলেন খড়গপুর সদরের BJP প্রার্থী হিরণ চট্টোপাধ্যায়।

উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গায় BJP প্রার্থীর সমর্থনে প্রচারে গিয়ে হিরণ বলেছেন, ‘মুসলিম ভাইবোনেরা বুঝে গিয়েছেন, তাঁদের যদি কেউ উপকার করে থাকেন, তাহলে সেটা নরেন্দ্র মোদী। তিন তালাক কে তুলেছেন? মোদী।

সমস্ত রকমের উন্নয়নের সুবিধা হিন্দু ভাইরা যা পেয়েছেন, মুসলিম ভাইবোনেরাও তাই পেয়েছেন।

ভোটের সময় মুসলিম ভাইবোনদের কাছে যান তৃণমূলের নেতারা। ভোট চান তাঁরা। তারপর হাওয়া হয়ে যান।’

উল্লেখ্য, বাংলায় চতুর্থ দফার ভোটের দিন তৃণমূলের ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের অডিয়ো টেপ ঘিরে তোলপাড় পড়ে যায় রাজ্য রাজনীতিতে।

যেখানে তৃণমূলের ভোটকুশলীকে বলতে শোনা গিয়েছে, সংখ্যালঘু তোষণে রাজনীতির কথা। ওই অডিয়ো ক্লিপে পিকে বলেছেন, কংগ্রেস, বাম, তৃণমূল, সব দলই মুসলিম ভোট পেতে কাজ করেছে। তাঁর কথায়, যে পাবে মুসলিম ভোট, তারাই জিতবে, এই বিশ্বাস নিয়েই চলছে বাংলার রাজনীতি।

প্রশান্ত কিশোরের অডিয়ো টেপ সামনে আসার পরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে টার্গেট করে মিম প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়াইসি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ব্যর্থতার জন্য মুসলিমদের বলির পাঁঠা করা হচ্ছে’।

টুইটে ওয়াইসি লিখেছেন, সরকারি চাকরি, শিক্ষা-সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে আজও বাংলার মুসলিমরা বঞ্চিত।

নিউজটি শেয়ারের অনুরোধ রইলো

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২১ 'বিজয়ের বাংলা'
Developed by  Bijoyerbangla .Com
Translate to English »