1. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
মানবতাঃ ৮শ’জনের বেশি দুঃস্থ রোগীর দৃষ্টি ফিরিয়ে দিল ইসিপি-এমএসএস! - ২৪ ঘন্টাই খবর
শিরোনাম:
অবশেষে নিয়ন্ত্রণে চকবাজারের আগুন ক্রিকেট বিশ্বকে চমক দেখিয়ে ফের ঝড়ো সেঞ্চুরি, নতুন রূপে পুজারার আবির্ভাব আফ্রিকার বর্ষসেরা ক্রিকেটারের জায়গা লুফে নিলেন মহারাজ গরম খবরঃ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর সবাকে পিছনে ফেলে পাকিস্তানের তৃতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার পাচ্ছেন বাবর এশিয়া কাপে আফগানদের বিপক্ষে মাঠে নামছে টাইগাররা, দেখুন সময়সূচি! দারুণ খবরঃ মালদ্বীপের হেড কোচ হিসেবে নিযুক্ত হলেন বাংলাদেশের সাবেক তারকা ক্রিকেটার! আলোচিত খবরঃ শোক দিবসে বিদ্যালয়ে বাজানো হচ্ছে হিন্দি গান! এবার পলিথিন কারখানার আগুন ছড়িয়ে পড়ছে আশপাশে, নিয়ন্ত্রণে ১০ ইউনিট প্রকাশ হলো এশিয়া কাপে ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে আফিফ হোসেন অথবা সাকিব আল হাসানকে

মানবতাঃ ৮শ’জনের বেশি দুঃস্থ রোগীর দৃষ্টি ফিরিয়ে দিল ইসিপি-এমএসএস!

  • আপডেট করা হয়েছে: বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন, ২০২২
  • ৬০ বার পঠিত

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের ৮২৭ জন সুবিধাবঞ্চিত রোগীর বিনামূল্যে চোখের ছানি অপারেশনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিরোধযোগ্য অন্ধত্ব দূরীকরণের

লক্ষ্যে জুন মাসব্যাপী দিনাজপুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, লালমনিরহাট, ঠাকুরগাঁও, নাটোর, গাইবান্ধা, রাজশাহী, কুড়িগ্রাম ও কুষ্টিয়ায় ২১টি চক্ষু শিবিরের আয়োজন করা হয়।

মানবিক সাহায্য সংস্থার (এমএসএস) নিজস্ব অর্থায়ন ও আই কেয়ার প্রোগ্রামের (ইসিপি) দাতাগণের আর্থিক সহযোগিতায় এসব চক্ষু শিবির বাস্তবায়ন করা হয়। এছাড়া এমএসএসের স্কুল

সাইট টেস্টিং প্রোগ্রামের (এসএসটিপি) আওতায় দিনাজপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলার ৬টি স্কুলের ১৬৭০ জন দরিদ্র শিক্ষার্থীকে বিনামূল্যে প্রয়োজনীয় চক্ষুসেবা দেয়া হয়।

দক্ষ চিকিৎসক, টেকনিশিয়ান ও চক্ষু পরীক্ষার আধুনিক যন্ত্রপাতির সাহায্যে চক্ষু শিবিরগুলোতে ৪ হাজার ৮৩৫ জন দরিদ্র ব্যক্তিকে চক্ষুসেবা প্রদান করা হয়। চোখে ছানি শনাক্ত হয় ১ হাজার ৭৫ জন রোগীর। প্রয়োজনীয়

প্রেসক্রিপশনসহ ১ হাজার ৪০৩ জন রোগীকে চশমা প্রদান করা হয়। রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা হয়েছে ১২০০ জনের। এছাড়া রোগীদের মধ্যে ৫০টি মাস্ক এবং চোখের যত্নে প্রায় ৩ হাজার সচেতনতামূলক প্রচারপত্র বিতরণ করা হয়।

এছাড়া সংস্থার সহযোগী হাসপাতাল-সফিউদ্দীন আহমেদ ফাউন্ডেশন (সেফ), ঠাকুরগাঁও, রংপুর চক্ষু হাসপাতাল, রংপুর, মক্কা চক্ষু হাসপাতাল, রাজশাহী এবং প্রফেসর এম এ মতিন মেমোরিয়াল বিএনএসবি বেস চক্ষু হাসপাতাল, সিরাজগঞ্জে ছানি শনাক্ত রোগীদের অপারেশনের ব্যবস্থা করা হয়।

এমএসএস-এর প্রেসিডেন্ট ফিরোজ এম হাসান বলেন, চক্ষুসেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষদের সীমাবদ্ধতার কথা চিন্তা করে ইসিপি-এমএসএস দেশজুড়ে সংস্থার কার্যক্রম সম্প্রসারণ করেছে যাতে সরাসরি তাদের কাছে চক্ষুসেবার আধুনিক সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দেয়া যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com