1. skarman0199094@gmail.com : Sk Arman : Sk Arman
  2. atikurrahman0.ar@gmail.com : MD : MD Atikurrahaman
  3. alamran777777@gmail.com : Md. Imran : Md. Imran
  4. Mijankhan298@gmail.com : Md Mijankhan : Md Mijankhan
  5. mbbrimon@gmail.com : MBB Rimon : MBB Rimon
  6. rujina666666@gmail.com : Rujina Akter : Rujina Akter
  7. shamimulislamtanvirrana@gmail.com : MD Tanvir Islam : MD Tanvir Islam
  8. shafiulislamtanzil@gmail.com : Safiul Islam Tanzil : Safiul Islam Tanzil
 

ভাতের মাড় কখনো ফেলবেন না, কারণ তা অবিশ্বাস্য কাজের!

  • প্রকাশিত: ০৯:০২ am | শনিবার ১৭ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৩৮ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা: ফ্যান বা মাড়টা কি কখনও রেখে দিয়েছেন? সুতির জামা-কাপড়ে মাড় দেওয়ার প্রয়োজনে, মাঝেমধ্যে কেউ ভাতের ফ্যান রেখে দিলেও, সাধারণত অপ্রয়োজনীয় ধ’রে নিয়ে ফে’লেই দেন। কিন্তু, জা’নেন কি ভাতের ফ্যান বা চাল ধোওয়া পানিে রয়েছে ‘বিউটি সিক্রেট’?

নানা ভিটামিন ও মিনারেলে পরিপূর্ণ। শুধু ত্বক নয়, চুলের জন্যও যা উপকারী। চুল ভালো রাখে : চুলে শ্যাম্পু করার পর ভাতের ফ্যান দিয়ে মাথাটা ভালো করে ঘষে নিন। কয়েক মিনিট এ অব’স্থায় রেখে দিয়ে, পানি ভালো করে চুল ধুয়ে নিন।

কিছুদিনের মধ্যেই চুল হয়ে উঠবে মসৃণ, ঝলমলে। যাদের চুলের আগা ফেটে যাচ্ছে, তারাও উপকৃত হবেন। ত্বকে জৌলুস আনে : যাঁদের ত্বক ঔজ্জ্বল্য হারাচ্ছে, তারাও মুখে ভাতের ফ্যান মাখতে পারেন। প্রথমে উ’ষ্ণ গরম পানিে মুখে ধুয়ে নিন। তারপর তুলোয় করে সারা মুখে ভাতের ফ্যান মাখু’ন।

কিছুক্ষণ রেখে, মুখ ধুয়ে নিন। এতে ত্বকের জৌলুস ফেরার পাশাপাশি ত্বক টানটানও হবে। তাই মুখের বলিরেখা ঠে’কাতে এটি ব্যবহার ক’রতে পারেন।

ত্বকের জ্বা’লা ও প্রদাহের চিকিৎ’সায় : কিছুটা চাল টগবগ করে ফুটিয়ে নিয়ে সেই পানিটা একটা পাত্রে রেখে দিন। গায়ে বা শ’রীরের কোথাও র‌্যাশ বেরোলে, অন্ত’ত ১৫ মিনিট চুবিয়ে রাখু’ন। ফল পাবেন।একজিমা’রও ওষুধ চালের পানি : যেখানে একজিমা হয়েছে, চালের পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন।

যত দিন না স’ম্পূর্ণ সারছে, লা’গিয়ে যেতে হবে।ডায়েরিয়ার ওষুধ : ডায়েরিয়ায় ভুগলে এক গ্লাস ভাতের ফ্যানে এক চিমটি লবণ মিশিয়ে খেয়ে নিন। চটপট পে’ট ঠিক হয়ে যাবে।

ভাতের ফ্যানে রয়েছে ৮টি জ’রুরি অ্যামাইনো এসিড। পেশি পুনর্গঠনে সাহায্য করে। এতে থাকা কার্বোহাইড্রেট এনার্জির জোগান দেয়। ফলে, এরপর ভাতের ফ্যান ফে’লে না দিয়ে, কাজে লা’গান। ফ্যান মাখতে অস্ব’স্তি বোধ করলে, কিছুটা চাল ধুয়ে অল্প ফুটিয়ে, সেই পানি ফ্রিজে ঠাণ্ডা করেও মাখতে পারেন। সমান উপকারী।

নিউজটি শেয়ারের অনুরোধ রইলো

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২১ 'বিজয়ের বাংলা'
Developed by  Bijoyerbangla .Com
Translate to English »