1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  3. msthoney406@gmail.com : Md Rayhan : Md Rayhan
বেড়েই চলেছে তেলের দাম, জিম্মি ক্রেতারা - Online newspaper in Bangladesh
শিরোনাম:
ধর্ষকদের প্রকাশ্যে শাস্তির দাবি এসপি মাহিরার হৃদয়বিদারক দৃশ্যঃ সন্তানকে ডুবতে দেখে ঝাঁপ দিলেন মা, বাঁচল না কেউই কন্যাসন্তান বলে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে মেরে ফেললো মা স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকা নিয়ে সুখবর দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাসের সংখ্যা বাড়ানো নিয়ে নতুন সির্ধান্ত জানালেন: শিক্ষামন্ত্রী তলিয়ে গেছে বহু আলু-বাদাম ক্ষেত, ডুবেছে পুকুর মাত্র পাওয়াঃ গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষায় নতুন নিয়ম প্রকাশ! আরিয়ানের খাবার পাঠানো নিয়ে জেল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ শাহরুখের কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম নিজের মেয়ের গলায় ব্লেড ধরে হিংস্র রূপ নেন বাবা,মা এসে দেখেন মেয়ে রক্তাক্ত!

বেড়েই চলেছে তেলের দাম, জিম্মি ক্রেতারা

  • আপডেট করা হয়েছে: মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৪৪ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা: সব রকমের ভোজ্যতেলের দাম খোলা বাজারে আবারও বেড়েছে। এতে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন ও মধ্যম আয়ের মানুষজন। প্রতিনিয়ত নিত‌্যপণ্যের দামের ঊর্ধ্বগতির কারণে সংসার চালানো কষ্টকর হয়ে পড়েছে তাদের। এ ব্যাপারে সরকারের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ক্রেতারা।

সোমবার (১১ অক্টোবর) রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, বোতলজাত প্রতি লিটার তেল ২ থেকে ৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১৫৪-১৫৫ টাকায়। আর খোলা তেল লিটার প্রতি বিক্রি হচ্ছে ১৪৪-১৫০ টাকা দরে। পামওয়েল বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকায়।

বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এক সপ্তাহ আগেও খোলা বাজারে পামওয়েল বিক্রি হয়েছে ১৩০ টাকা থেকে ১৩৬ টাকায়। গত বছর একই সময়ে এ তেল বিক্রি হয়েছিল ৮৮-৯৩ টাকা দরে। এক বছরের ব্যবধানে দামে বেড়েছে ৪৫-৫০ টাকা। বছরের ব‌্যবধানে একইভাবে দাম বেড়েছে বোতলজাত ও খোলা সয়াবিনের।

কারওয়ান বাজারে আসা ক্রেতা মমতাজ উদ্দিন বলেন, সপ্তাহ খানেক আগে তেল কিনেছি ১৫০-১৫২ টাকা লিটারে। আজ কিনতে হয়েছে ১৫৫ টাকায়। পেঁয়াজের কেজি ৮০ টাকা, মরিচের কেজি ১৮০-২০০ টাকা, চালের কেজি ৭০ টাকা। প্রতিটি জিনিসেরই দাম বাড়ছে। কথা নেই, বার্তা নেই ব্যবসায়ীরা ইচ্ছে মতো দাম বাড়াচ্ছে। আমরা সিন্ডিকেটের কাছে জিম্মি হয়ে আছি।

হাতিরপুল বাজারে কথা হয় ক্রেতা আজহারুল ইসলামের সঙ্গে। তিনি বলেন, করোনায় আমাদের আয় কমে গেছে। যাতায়াত ও ঘর ভাড়ার টাকা যোগাড় করতেই কষ্ট হচ্ছে। এ সময় নতুন করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম প্রতিদিনই বাড়ছে। সরকারের উচিত জনগণের কথা বিবেচনায় রেখে বাজার নিয়ন্ত্রণে আনা।

নিউমার্কেটের পাইকারি ব্যবসায়ী আব্দুল মতিন বলেন, বিশ্ববাজারে তেলের দাম বাড়ার দোহাই দিয়ে যেসব প্রতিষ্ঠানগুলো তেল আমদানি করছে, তারা তেলের দাম বাড়াচ্ছে। আমরা বেশি দামে এনে তো আর লোকসান দিয়ে বিক্রি করতে পারি না।

আমাদের তো লাভও হচ্ছে না। অথচ ব্যবসা ধরে রাখতে কম করে তেল রাখছি। লাভ যা করার কোম্পানিগুলো করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2021
Site Developed By Bijoyerbangla.com