1. atikurrahman0.ar@gmail.com : MD Atikurrahaman : MD Atikurrahaman
  2. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  3. mbbrimon@gmail.com : MBB Rimon : MBB Rimon
  4. shamimulislamtanvirrana@gmail.com : MD Tanvir Islam : MD Tanvir Islam
  5. shafiulislamtanzil@gmail.com : Safiul Islam Tanzil : Safiul Islam Tanzil
 

এবার বাংলাদেশি যুবককে পি’টিয়ে মা’রল ভারতীয়রা ০৪ দিন পেরুলেও লা’শ হস্তান্তর করেনি তারা

  • প্রকাশিত: ০২:২০ pm | বৃহস্পতিবার ২৮ মে, ২০২০
  • ২২৩ বার পঠিত
এবার বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে মা'রল ভারতীয়রা ০৪ দিন পেরুলেও লা'শ হস্তান্তর করেনি তারা
এবার বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে মা'রল ভারতীয়রা ০৪ দিন পেরুলেও লা'শ হস্তান্তর করেনি তারা

বিজয়ের বাংলা:
এবার বাংলাদেশি যুবককে পি’টিয়ে মা’রল ভারতীয়রা ০৪ দিন পেরুলেও লা’শ হস্তান্তর করেনি তারা।এবার লোকমান হোসেন (৩২) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে নি’র্মমভাবে পি’টিয়ে হ’ত্যা করেছে ভারতীয় নাগরিকরা।০৪ দিন পেরিয়ে গেলেও তার লা’শ হস্তান্তর করেনি ভারতীয় প্রশাসন।লোকমান মিয়া মাধবপুর

 

উপজেলার সীমান্তবর্তী ধর্মঘর ইউনিয়নের মালঞ্চপুর গ্রামের মৃ’ত আবদুল হাসিমের ছেলে।নি’হতের পরিবার জানায়, গত ২৪ মে অ’বৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের ত্রিপুরার মোহন এলাকায় ফুফুর বাড়ি

 

যাচ্ছিলেন লোকমান। তিনি মোহনপুর চা বাগানে পৌঁছতেই এক দল ভারতীয় নাগরিক তাকে গরুচো’র সন্দেহে এ’লোপাতাড়ি পি’টাতে থাকে। এসময় তিনি বেড়াতে এসেছেন জানালেও ভারতীয়দের মন গলেনি।খবর

 

পেয়ে পশ্চিম ত্রিপুরার সিধাই থানার পুলিশ মু’মূর্ষু অবস্থায় উ’দ্ধার করে একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে লোকমানের মৃ’ত্যু হয়। পরে মাধবপুর পুলিশের ইন্সপেক্টর মোরশেদ আলমকে মৌখিকভাবে অবগত করেন সিধাই থানার ওসি বিজয় সিং।
বুধবার বিকালে সীমান্তের ১৯৯৪/৪ এস

 

পিলারের কাছে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক হয়। ভারতের পক্ষে ১২০ ব্যাটালিয়নের মোহনপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ইন্সপেক্টর শশি কান্ত ও বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন ৫৫ বিজিবির ধর্মঘর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার দেলোয়ার হোসেন।এদিন মোহনপুর সীমান্ত

 

দিয়ে লা’শ হস্তান্তর করার কথা ছিল। কিন্তু ভারতীয় পুলিশ ময়নাতদন্ত, সুরতহাল রিপোর্ট আনুসাঙ্গিক কাগজপত্র ছাড়া লা’শ হস্তান্তর করতে চায়। এতে বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা অস্বীকৃতি জানায়। ফলে লা’শ গ্রহণ করেনি বিজিবি।নি’হতের ছোট ভাই

 

হুমায়ুন বলেন, আমার ভাইকে হ’ত্যা করা হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যমে বিষয়টি প্রচার হয়েছে। অথচ কাগজপত্র ছাড়া লা’শ ফেরত দিতে চায়। আমরা বিজিবি, পুলিশের মাধ্যমে কাগজপত্রসহ লা’শ চাই।

হবিগঞ্জ ব্যাটালিয়ন ৫৫ বিজিবির সহকারী পরিচালক নাসির উদ্দিন চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সূত্র-যুগান্তর।
বিয়েবাড়ি থেকে ফেরার সময় নৌকাডুবিতে কনের বাবাসহ ৪ জনের মৃ’ত্যু

নিউজটি শেয়ারের অনুরোধ রইলো

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২০ 'বিজয়ের বাংলা'
Developed by  Bijoyerbangla .Com
Translate to English »