1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
নিজেকেই ঝুঁকিতে ফেলছেন সোহান - ২৪ ঘন্টাই খবর

নিজেকেই ঝুঁকিতে ফেলছেন সোহান

  • আপডেট করা হয়েছে: বুধবার, ১৭ আগস্ট, ২০২২
  • ১৬৩ বার পঠিত

মাশরাফি বিন মুর্তজার দৃষ্টিতে নুরুল হাসান সোহান ‘পাগলা’ ক্রিকেটার। জীবন বাজি রেখে ম্যাচ খেলা অভ্যাস তাঁর। গ্লাভস হাতে যেমন ক্ষিপ্রগতির, তেমনি ব্যাট করার সময় যে কোনো মূল্যে

উইকেট বাঁচাতে মরিয়া থাকেন তিনি। সোহানের এই পাগলামো শুধু মাশরাফিরই নয়, জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটারদেরও পছন্দ। খেলাপাগল এ উইকেটরক্ষক ব্যাটার গত কিছু দিনে কোচিং স্টাফেরও হৃদয় জিতে নিয়েছেন। যদিও সোহানের

পাগলামোটা এখন বোধহয় একটু বেশিই হয়ে যাচ্ছে। টি২০ এশিয়া কাপে খেলার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন তিনি। একপ্রকার জোর করেই এশিয়া কাপের দলে নিজের নাম রেখেছেন সোহান। অস্ত্রোপচার হওয়া বাঁ হাতের তর্জনীর ব্যান্ডেজ খোলার পর ব্যাট

ধরতে পারলেই মনের জোরে হয়তো ম্যাচ খেলতে নেমে যাবেন। কোনো সন্দেহ নেই এই একাগ্রতার জন্য সবার কাছ থেকেই বাহ্বা পাবেন সোহান। কিন্তু তিনি হয়তো বুঝতে পারছেন না তাড়াহুড়ো করতে

গিয়ে নতুন করে চোট বাঁধানোর ঝুঁকি বয়ে আনতে পারেন। বিসিবির মেডিকেল বিভাগ থেকেও তাই ধীরে চলো নীতি অনুসরণ করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে সোহানকে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে

দ্বিতীয় টি২০ ম্যাচে হাসান মাহমুদের বল কিপিং করার সময় বাঁ হাতের তর্জনীতে চোট পান সোহান। ব্যথা নিয়েই ইনিংসের শেষ পর্যন্ত কিপিং করেন তিনি। এক্স-রেতে চিড় ধরা পড়ায়

সিরিজ থেকে ছিটকে যেতে হয় তাঁকে। আঙুলের জোড়ার তরুণাস্থিতেও চিড় প্রশস্ত হওয়ায় সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয় উন্নত চিকিৎসার জন্য। ৯ আগস্ট আঙুলে অস্ত্রোপচার হয়। তিনটি পিনের প্রথমটি

খোলা হয় গতকাল। বাকি দুটি খোলা হবে ২২ আগস্ট এক্স-রে রিপোর্ট ভালো এলে। ওই দিনই জানা যাবে সোহানের চোটমুক্ত হওয়ার অগ্রগতি সম্পর্কে। চিড় পুরোপুরি সেরে গেলেও স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে

পেতে সপ্তাহ খানেক লেগে যাবে তাঁর। ফিটনেস ও ব্যাটিং অনুশীলন করে নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে ম্যাচের জন্য। সেক্ষেত্রে গ্রুপ পর্বে সোহানকে পাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। বাংলাদেশ সুপার ফোরে গেলে উইকেটরক্ষক

এ ব্যাটারের এশিয়া কাপ খেলার স্বপ্ন পূরণ হতে পারে। যদিও গতকাল বিসিবির একজন ফিজিও জানান, সোহানের এশিয়া কাপে খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ। বিসিবি ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসও তাড়াহুড়ো করার পক্ষ নন,

‘প্রথম রাউন্ডে ওকে খেলার কোনো সুযোগ নেই। দ্বিতীয় রাউন্ডে গেলে শেষের দিকে খেলতে পারে। আমরা সোহানকে নিয়ে বিশ্বকাপের পরিকল্পনা করছি।’ খেলার জন্য মন আনচান করলেও

নিজের ভালোর জন্যই হয়তো সংযত থাকার চেষ্টা করবেন সোহান। বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চের কথা মাথায় রাখার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে তাঁকে। বিষয়টি নিয়ে ভাবতে শুরু

করেছেন সোহান নিজেও, ‘এখন তো ভালোই মনে হচ্ছে। ২২ তারিখ এক্স-রে করার পর বুঝতে পারব চিড় সেরে গেছে কিনা। বাকি দুটি পিন খুলে দিলে মাঠে নামতে পারব। হাতের ব্যালেন্স

ফেরাতে কিছু কাজ করতে হবে। সবকিছু ঠিক থাকলে খেলা যেতে পারে।’ চোটমুক্ত হয়ে দ্রুত খেলায় ফিরলে ব্যাটিং করতে পারলেও কিপিং করার ঝুঁকি নেওয়া

ঠিক হবে না বলে জানান বিসিবির একজন ফিজিও। তবে সোহান চাইলেই হবে না, সিঙ্গাপুরের শল্যচিকিৎসক অ্যান্থনি ফুর ছাড়পত্র লাগবে খেলায় ফিরতে হলে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com