1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
নতুন ঘর পেয়ে নতুন বউ আনবেন, তা হবে না: প্রধানমন্ত্রী - ২৪ ঘন্টাই খবর

নতুন ঘর পেয়ে নতুন বউ আনবেন, তা হবে না: প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট করা হয়েছে: শুক্রবার, ৭ অক্টোবর, ২০২২
  • ৯৬ বার পঠিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি বেশ শক্তিশালী অবস্থানে থাকায় উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। তিনি বলেন, সারা বিশ্ব যেখানে অশান্তিতে ভুগছে। সেখানে আমরা কিছুটাতো সমস্যায় আছি। তবে, আমাদের দেশের মানুষ যেন কষ্ট না হয়;

ভাল থাকে সে ব্যবস্থা নিচ্ছি। বিশেষ করে কৃষিখাতে জোর দিচ্ছি। সকল প্রকার উৎপাদন বাড়ানোর প্রতি জোর দিচ্ছি। বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) বিকেল ৪টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের

জবাবে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদী দিক বিবেচনা করে, কোন ঝুঁকির মধ্যে নেই। আমি আপনাদের সকলকে নিশ্চিত করতে পারি যে উদ্বেগের কিছু নেই। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকে আমরা ঘর করে দিচ্ছি। তাদের

ঘরের পাশে কিছুটা জায়গা দিচ্ছি। তারা হাঁস, মুরগি শাক-সবজি চাষাবাদ করছে। এতে উৎপাদন বাড়ছে।’ তিনি বলেন, ‘যাদের ভূমি নেই আপনারা জানাবেন, আমরা তাদের ঘর করে দিচ্ছি। স্বামী-স্ত্রীর নামে আমরা নতুন ঘর করে দিচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী মজা করে বলেন, নতুন ঘর পেয়ে কেউ নতুন বউ আনবেন, তা হবে না। এ সময় সবাই হেসে ওঠেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এটা স্বামী-স্ত্রী সবাইর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধকে ঘিরে নিষেধাজ্ঞা ও পাল্টা নিষেধাজ্ঞার কারণে আগামী বছর সারা বিশ্বের জন্য ‘খুবই বিপর্যয়কর’ হতে পারে। তবে দেশের অর্থনীতি ‘পর্যাপ্ত শক্তিশালী’ এবং উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই সফরে বিশ্বনেতাদের মধ্যে যাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছে, তারা সবাই অর্থনীতি নিয়ে উদ্বেগের কথা বলেছেন। সবার মধ্যে এমন একটা ভয় আছে। সবাই

বলেছে যে, ২০২৩ সালে বিশ্বের জন্য একটি অত্যন্ত বিপর্যয়কর সময়ের দিকে আসছে, এমনকি বিশ্বব্যাপী দুর্ভিক্ষও দেখা দিতে পারে। এ নিয়ে সবাই চিন্তিত ও আতঙ্কিত।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রে টানা ১৮ দিনের সফর শেষে গত সোমবার দিবাগত রাত একটার দিকে দেশে ফেরেন প্রধানমন্ত্রী। গত ১৫ সেপ্টেম্বর যুক্তরাজ্যে যান শেখ হাসিনা। সেখানে তিনি রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের

অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া এবং রাজা চার্লস তৃতীয় আয়োজিত অভ্যর্থনায় যোগ দেন। পরে ১৯ সেপ্টেম্বর তিনি নিউইয়র্কের উদ্দেশে লন্ডন ত্যাগ করেন। সফরের বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলতে (বৃহস্পতিবার) সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com