1. atikurrahman0.ar@gmail.com : MD Atikurrahaman : MD Atikurrahaman
  2. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  3. shafiulislamtanzil@gmail.com : Safiul Islam Tanzil : Safiul Islam Tanzil
 
সর্বশেষঃ
মোবাইলের সূত্র ধরে ১১ মাস পর ব্যবসায়ীর কঙ্কাল উদ্ধার আটক সেই পরকীয়া প্রেমিক-প্রেমিকা এই পাকিস্তানই একমাত্র আমাদের প্রকৃত বন্ধু: চীনের প্রেসিডেন্ট এসএসসি রেজাল্ট প্রকাশিত হচ্ছে রোববার ফিলিস্তিন মুক্ত করার সংগ্রাম আল্লাহর রাস্তায় জিহাদের সমান:আয়াতুল্লাহিল খামেনেয়ী কটিয়াদীতে মসজিদে এতেকাফ করা অবস্থায় শিক্ষকের মৃ’ত্যু সীমান্তে ব্যাপক উত্তেজনা নিরসনে চীনের সঙ্গে আলোচনায় ভারত এবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাসায় ৪ জন করোনায় আক্রান্ত লিবিয়ায় ২৬ জন বাংলাদেশীকে গু’লি করে হ’ত্যা নড়াইলের স’ন্ত্রাসীদের হাতে নি’হত ক্রীড়াবিদ ও আ’লীগ নেতার দা’ফন সম্পন্ন অতিতের রেকর্ড ভেঙ্গে আজ আক্রান্ত ২০২৯ জন মৃ’ত্যু ১৫ জনের

ধর্মের ভেদাভেদ ভুলে হিন্দু মন্দিরে খাবার বিলি করলেন আফ্রিদি

  • প্রকাশিত: ০৮:২৪ pm | বুধবার ১৩ মে, ২০২০
  • ১০৩ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা:
ধর্মের ভেদাভেদ ভুলে হিন্দু মন্দিরে খাবার বিলি করলেন আফ্রিদি। করোনা জাতি-ধর্ম-বর্ণ মানে না। তাই এমন সঙ্কটের দিনে ধর্মের ভেদাভেদ না করেই করোনা থেকে মুক্তি পেতে প্রত্যেককে পরস্পরের পাশে দাঁড়াতে হবে।

ঠিক যেমনটা করলেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেট তারকা শাহিদ আফ্রিদি। হিন্দু-মুসলিম ভেদাভেদ ভুলে মানুষ হিসেবে অভুক্তদের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করলেন তিনি। সম্প্রতি মন্দিরে গিয়ে খাবার বিলি করেন। যার জন্য প্রাক্তন ক্রিকেটারকে প্রশংসা জানাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া।

করোনা মোকাবেলায় লকডাউনের জেরে সমস্যায় পড়েছেন দিন আনি দিন খাই মানুষগুলো। দু’বেলা-দু’মুঠো অন্নের জোগান করতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে দুস্থ-গরিব পরিবারগুলো। এমন দুর্দিনে তারা যাতে অভুক্ত না থাকেন,

তার জন্য অনেকদিন আগে থেকেই উদ্যোগ নিয়েছেন বুমবুম ও তার সংগঠন। পাকিস্তানের বিভিন্ন প্রান্তে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে তার ফাউন্ডেশন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে দেখা যাচ্ছে আফ্রিদিকে। ফের নতুন করে নেটদুনিয়ার প্রশংসা কুড়োলেন চিরতরুণ আফ্রিদি।

সম্প্রতি একটি হিন্দু মন্দিরে যান তিনি। সেখানেও খাবার বিলি করেন। যার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে আফ্রিদি লেখেন, আমরা একসঙ্গে সঙ্কটে পড়েছি। তাই ঐক্যবদ্ধভাবেই লড়তে হবে। একতাই আমাদের শক্তি। খাবার দিতে শ্রী লক্ষ্মী নারায়ণ মন্দিরে গিয়েছিলাম।

এই মহত্‍ কাজে যে সমস্ত খাবারের ব্র্যান্ড তার পাশে দাঁড়িয়েছে তাদের ধন্যবাদও জানিয়েছেন আফ্রিদি। এখনো পর্যন্ত ২২ হাজার পরিবারের কাছে রেশন পৌঁছে দিতে পেরে খুশি তিনি। তবে এখানেই ইতি নয়।

এখনো অনেক কাজ বাকি। তাই তো তার এই সমাজসেবা চলবে। পাকিস্তানের আরো শহর ও গ্রামের মানুষ উপকৃত হবেন তাকে পাশে পেয়ে।
আরো পড়ুনঃ বাবার ক্যানসার, আইসক্রিম বেচে নুনতেল জোগাচ্ছে স্কুলছাত্র

নিউজটি শেয়ারের অনুরোধ রইলো

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২০ 'বিজয়ের বাংলা'
Developed by  Bijoyerbangla .Com
Translate to English »