1. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
দুর্ঘটনা-বন্দুক হামলার চেয়েও বেশি মানুষ মারা যাচ্ছে ওষুধের 'ওভারডোজে'! - ২৪ ঘন্টাই খবর
শিরোনাম:
এইমাত্র পাওয়াঃ এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য আসলো বিশাল সুখবর! চাঞ্চল্যকরঃ টিকটক করতে সেতু থেকে লাফ দিয়ে যুবক নিখোঁজ এইমাত্র পাওয়াঃ বৈঠক শেষে ফুরফুরে মেজাজে ‘ফ্লাইং কিস’ দিয়ে রহস্যজনক বার্তা দিলেন সাকিব ব্রেকিং নিউজঃ ডিপ্লোমা কোর্স ৪ থেকে ৩ বছর হওয়া নিয়ে শিক্ষা মুন্ত্রি দীপু মনির বক্তব্য! মাত্র পাওয়াঃ অবশেষে‘সাকিব তার ভুল বুঝতে পেরেছে’ নিজের যোগ্যতা দেখিয়ে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টির জায়গা ছিনিয়ে নিলেন এবাদত এইমাত্র পাওয়াঃ পরীক্ষা হলে জালিয়াতি, মিলল ৬টি জাতীয় পরিচয়পত্র চোটের কারণে এশিয়া কাপের দলে অনেকে বাদ পরলেও যে কারণে বাদ পড়লেন না সোহান মাত্র পাওয়াঃ সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত, জলোচ্ছ্বাসের পূর্বাভাস সকলকে ভেলকি দেখিয়ে এশিয়া কাপ দলে স্পেশালিস্ট হয়ে ফিরলেন সাব্বির

দুর্ঘটনা-বন্দুক হামলার চেয়েও বেশি মানুষ মারা যাচ্ছে ওষুধের ‘ওভারডোজে’!

  • আপডেট করা হয়েছে: রবিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ২৭৮ বার পঠিত

২০২০ সালের এপ্রিল থেকে এবছরের এপ্রিল মাস পর্যন্ত ১২ মাসে ১ লাখেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে শুধুমাত্র ওষুধের ওভারডোজের কারণে। এই মৃত্যুহার ঠিক এক বছর আগের হারের চেয়ে সাড়ে ২৮ গুণ বেশি। গত ১৭ নভেম্বর বুধবার ইউএস সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড

প্রিভেনশন (সিডিসি) কর্তৃক প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে এমনই সব তথ্য।সিডিসি’র ন্যাশনাল সেন্টার ফর হেলথ স্ট্যাটিসটিক্স জানাচ্ছে, ফেনটাইলের মতো অজৈব অপয়েড প্রধানত এই বর্ধনশীল মৃত্যুহারের জন্য দায়ী। উল্লেখ্য, ঝুঁকিপূর্ণ মরফিনের থেকেও ১০০ গুণ

শক্তিশালী এটি। বেশিমাত্রায় অজৈব অপয়েড সেবনের কারণে বছরে ৬৪ হাজার মৃত্যু ঘটেছে। জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা বলছে, করোনাকালে মৃত্যুর ৭ লাখ ৬৬ হাজার কেস ছিল শুধু ওভারডোজে মৃত্যু!এমন অনাকাঙ্ক্ষিত উর্ধ্বমুখী গ্রাফে স্বভাবতই দুশ্চিন্তা প্রকাশ করছে

মার্কিন প্রশাসন। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইতোমধ্যেই একে ‘মর্মান্তিক মাইলফলক’। তিনি বলেন, বিদেহীদের জন্য আমাদের শোকসন্তাপ ও তাদের স্মৃতির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা থেকে ড্রাগ আসক্তি ও ওভারডোজের দুর্গতি কাটিয়ে উঠতে সব কিছু করতে আমার প্রশাসন দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।কোভিড

মহামারীর কারণে কেবল ঝুঁকিপূর্ণ ওষুধ বাজারে সহজলভ্য হচ্ছে, তা-ই নয়, সেগুলোর প্রতি মাত্রাতিরিক্ত নির্ভরতাও বাড়ছে। উপরন্তু সামাজিক বিচ্ছিন্নতা তৈরির কারণে সেসব ওভারডোজে আসক্ত বা আক্রান্ত ব্যক্তিরা সুস্থ জীবনে ফেরার সুযোগও পাচ্ছেন না।সিডিসি বলছে, শুধু ২০২০

সালে ওষুধের ওভারডোজে মারা গেছে অন্তত ৯৩ হাজার মানুষ। যা কিনা গাড়ি দুর্ঘটনা ও বন্দুক হামলায় ঘটা মৃত্যুর চেয়েও সংখ্যায় বেশি। ফলে করোনা মহামারীর সমান্তরালে নতুন মহামারীও পার করছে বিশ্ব- ওভারডোজ মহামারী!চিকিৎসক ও ফার্মাসিস্টদের ব্যবস্থাপত্রে ১৯৯০ সাল

থেকে অপিওয়েড, ২০১০’র দিক থেকে হেরোইনের আধিক্য বাড়ার সাথে সাথে ২০১৩ সাল থেকে যোগ হচ্ছিল ফেনটাইল। আর এই সবগুলো মিলেই জটিল থেকে জটিলতর করছে ওভারডোজ মহামারীর পরিস্থিতি। সূত্র: আল জাজিরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com