1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
টি-টোয়েন্টির খেলা নিয়ে যে উপদেশ দিলেন সাকিব-মুশফিকদের ক্রিকেটগুরুর - ২৪ ঘন্টাই খবর

টি-টোয়েন্টির খেলা নিয়ে যে উপদেশ দিলেন সাকিব-মুশফিকদের ক্রিকেটগুরুর

  • আপডেট করা হয়েছে: বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০২২
  • ১৮১ বার পঠিত

অভিজ্ঞতার অভাব আর খেলার ধরন বুঝতে না পারার কারণেই টি-টোয়েন্টিতে ভালো করতে পারে না বাংলাদেশ। এশিয়া কাপ সামনে রেখে দলে বড় পরিবর্তনকে দেখছেন ইতিবাচকভাবে। এই ফরম্যাটে উন্নতি

করতে ঘরোয়া ক্রিকেটে আরও বেশি ২০ ওভারের ক্রিকেট খেলার তাগিদ। মিরপুরে দুই শিষ্য সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমকে ব্যাটিং অনুশীলন করানোর পর এমনটাই জানিয়েছেন বিকেএসপির উপদেষ্টা কোচ নাজমুল

আবেদীন ফাহিম। মিরপুরের সেন্ট্রাল উইকেটের পাশে সাকিব-মুশফিকের নিবিড় আলোচনা। এশিয়া কাপে ভালো করতে শৈশবের কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিমের শরণাপন্ন হয়েছেন এই দুজন। সেন্ট্রাল উইকেট থেকে

ব্যাট চালিয়ে, বল ফেলছেন বাউন্ডারির বাইরে। তবুও গুরুকে সন্তুষ্ট করতে ব্যর্থ। বারবার পরামর্শ নিয়ে পুনরায় মনোযোগ দিচ্ছেন ব্যাটিং সেশনে। ওয়ানডে ক্রিকেটের পরাশক্তি, সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে এখনো হতে পারেনি ধাতস্থ। টাইগারদের এমন

রোগের ওষুধ এখনো অজানা সবার। বিকেএসপির ক্রিকেট উপদেষ্টা নাজমুল আবেদীন মনে করেন, খেলার ধরন বুঝতে না পারাটাই প্রধান সমস্যা টাইগারদের। তিনি বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটে একজন ব্যাটার তার নিজের গতিতে ব্যাট

করতে পারে। ওয়ানডে ক্রিকেটে কিছুটা নিজস্ব গতিতে ব্যাট করতে পারে, কিছুটা হয়তো স্কোরবোর্ড দেখে করতে হয়। নিজের বেসিক যখন খেলতে পারি আমরা, তখন কিন্তু খুব ভালো খেলি। কিন্তু স্কোর

বোর্ডের পেসে যখন খেলতে হয়, সেটা অনেক সময় আমাদের জন্য ডিফিকাল্ট হয়ে যায়। টি-টোয়েন্টি একচুয়ালি একদম ভিন্ন একটা খেলা। এখানে অ্যাপ্রোচটা ভিন্ন হওয়া উচিত, এক্সিকিউশনটাও

ভিন্ন হওয়া উচিত। সেটা মনে হয় এখন আমরা রিয়ালাইজ করছি। সে জন্যই এত পরিবর্তন, সে জন্যই এত চিন্তাভাবনা।’সমস্যার পাশাপাশি সমাধানও

দিয়েছেন তিনি। সাকিব-মুশফিকদের কোচের পরামর্শ, ঘরোয়া ক্রিকেটে বাড়াতে হবে শর্টার ফরম্যাটের চলন। ফাহিম বলেন, ‘বিপিএলের বাইরেও যদি বিভিন্ন বিভাগে

ডমিস্টিক টুর্নামেন্ট হয়, যেখানে জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা সুযোগ পাবে না, কিন্তু তার পরের খেলোয়াড়রা সুযোগ পাবে। এগুলো খুব দরকার। সারা বছর এই আটটা-দশটা ম্যাচ খেলে হবে না। আরও অনেক বেশি টি-টোয়েন্টি খেলা দরকার। সম্ভব

হলে কিছু কিছু টি-টেনও খেলা দরকার।’এশিয়া কাপে মিডল অর্ডার থেকে উঠে এসে মুশফিককে দেখা যেতে পারে ওপেনিং পজিশনে। এমন গুঞ্জনের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেননি ফাহিম নিজেও। তবে ব্যাটিং অর্ডার বদলালে পরিবর্তন আনতে হবে

মানসিকতায়ও। টাইগারদের এই ক্রিকেটগুরু বলেন, মুশফিক যদি ওপেন করে, মুশফিককে ওভাবেই খেলতে হবে। টি-টোয়েন্টির যে ক্যারেক্টারস্টিকস আছে, টি-টোয়েন্টির যে গ্রামার আছে সেটা

অনুসরণ করেই খেলতে হবে কিন্তু। চেঞ্জ করলে একটা সম্ভাবনা আছে নতুন কিছু আসার। আগের চেয়ে খারাপও হতে পারে। বিশ্বকাপে হয়তো আমরা ভালো কিছু করব না, কিন্তু জানা দরকার আমাদের

অবস্থানটা কী।’ সাকিব-মুশফিকের সঙ্গে মিরপুরে এদিন ঘাম ঝড়িয়েছেন মিরাজ-বিজয়রাও। মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের আগে নিজেদের ভুলগুলো শুধরে ভালো করার বিকল্প নেই তাদের সামনে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com