1. atikurrahman0.ar@gmail.com : MD Atikurrahaman : MD Atikurrahaman
  2. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  3. mbbrimon@gmail.com : MBB Rimon : MBB Rimon
  4. shamimulislamtanvirrana@gmail.com : MD Tanvir Islam : MD Tanvir Islam
  5. shafiulislamtanzil@gmail.com : Safiul Islam Tanzil : Safiul Islam Tanzil
 
সর্বশেষঃ
মুসলিম উম্মাহর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে আরব আমিরাত বললেন: এরদোগান তোমাদেরকে সেলেব্রিটি বানানোর জন্য আমি রাজপথে নামিনি শিপ্রা-সিফাতকে নুর মসজিদে আযান দেয়ার সময় বাবাকে কোপাল ছেলে করোনা আক্রান্ত পুরোহিত ছিলো মোদীর সঙ্গে একমঞ্চে হতে পারে মোদীরও করোনা ! মুসলমানদের ঐক্য নষ্টে করতে চেয়েছিল মোসাদ: ষড়যন্ত্র ফাঁস হয়ে গেছে জীবনে একবার হলেও যে নামাজ পরতে হয় সেই সালাতুত তাসবিহ পড়ার নিয়ম যে দোয়া পড়লে সব সময় আল্লাহর রহমত নাজিল হয় ইসরাইলীরা ভেঙে দিচ্ছে বাড়ি,কান্নারত ফিলিস্তিনি শিশু বলল ‘আমার আল্লাহ্ ওদের বাড়িও ভেঙে দিবেন জানা গেলো লেবাননে ভয়াবহ বিস্ফোরণের কারণ পরিচয় মিলেছে প্রদীপের সেই আইনি পরামর্শদাতার

টাকার গরমে সবাইরে কিনতে চাইয়েন না, অনন্ত জলিলকে:হিরো আলম

  • প্রকাশিত: ১১:১২ am | রবিবার ১৯ জুলাই, ২০২০
  • ৫৫ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা:
টাকার গরমে সবাইরে কিনতে চাইয়েন না, অনন্ত জলিলকে:হিরো আলম।ফেসবুক থেকে ঢাকঢোল পিটিয়ে হিরো আলমকে নিয়ে ছবি বানানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন অনন্ত জলিল। মাসখানেকের মাথায় গতকাল বৃহস্পতিবার ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে জলিল জানালেন, তাঁর মর্যাদা

 
না বোঝাসহ আরও কয়েকটি কারণে ছবি থেকে বাদ দিয়েছেন আলমকে। জলিলের এই অভিযোগ মানতে নারাজ আলম। ফেসবুক লাইভে এসে আলম জানালেন, চলচ্চিত্রের ১৮ সংগঠনের সভায় জায়েদ

 
খান নিয়ে কথা বলার কারণেই জলিল তাঁকে ছবি থেকে বাদ দিয়েছেন।বগুড়ার ‘ডিশ’ ব্যবসায়ী আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম গানের ভিডিও ও নিজের প্রযোজিত নাটকে অভিনয় করে পরিচিতি

 
পান। সেই পরিচিতি কাজে লাগিয়ে তিনি চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন। এই সূত্রে পোশাক ব্যবসায়ী এবং চিত্রনায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জলিলের সঙ্গে যোগাযোগ হয়। জলিল ঘোষণা দেন, তাঁর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ছবিতে অভিনয় করাবেন

 
আলমকে। কিছুদিন আগে বাসায় ডেকে আলমের হাতে সাইনিং মানি হিসেবে ৫০ হাজার টাকা তুলে দেন।ফেসবুক লাইভে হিরো আলম বলেন, ‌‘অনন্ত জলিল ভাই আমাকে ফোন দিয়ে বললেন, “তোমাকে আমি বড় মুখ করে জায়েদ খানের সঙ্গে

 
মিলাইলাম। তুমি আমার মুখ রাখলে না।” তাঁকে বললাম, আমি তো এমন কিছু করিনি। তখন তিনি বললেন, “তোমাকে আমি মিলিয়ে দেওয়ার পরও কেন জায়েদ খানের বিরুদ্ধে কথা বলেছ?” চলচ্চিত্রের ১৮ সংগঠনের মিটিংয়ে সবাই জায়েদ খানের বিরুদ্ধে কথা বলছে, আমিও হয়তো কিছু

 
সত্য তুলে ধরছি। “যেহেতু তুমি আমার সম্মান রাখোনি, তোমাকে আমার সিনেমা থেকে বাদ দিয়ে দিলাম”।’হিরো আলম প্রশ্ন ছুড়ে দিলেন, ‘অনন্ত জলিল ভাইয়ের এমন কথা থেকে তাহলে আমি এখন কী বুঝব?

 
সত্য কথা বললে নাকি অন্যায়! সত্য বললে অন্যায় হলে তাতে দুঃখ নাই। এমন সত্য বলে তাঁর ছবি থেকে বাদ পড়লেও আমার আফসোস নেই।’প্রসঙ্গত এখানে বলা রাখা উচিত, হিরো আলমের সঙ্গে কিছুদিন আগে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক

 
জায়েদ খানের একটা দ্বন্দ্ব তৈরি হয়। বিষয়টি নিয়ে হিরো আলম বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতিতে মানহানির অভিযোগ দায়ের করেন। বিষয়টিরই মধ্যস্থতা করে দেন অনন্ত জলিল।হিরো আলম বললেন, ‘আজকে হিরো আলম যা কিছুই হয়েছে, কারও

কোনো সহযোগিতা নেয়নি। আমি অনন্ত জলিল ভাইকে কোনো দিন বলিনি, ফোনও দিইনি, আপনি আমাকে নিয়ে ছবি কবে বানাবেন? তিনিই আমাকে ডেকে নিয়ে গেছেন। জলিল ভাইয়ের উদ্দেশে বলতে চাই, ভাই আপনি এটা মনে কইরেন না, আপনি অনন্ত জলিল বইলা আপনার

 
পেছনে কিংবা আপনার সামনে মাথা নত কইরা থাকবে হিরো আলম। আপনি এটাও ভাববেন না, সিনেমা থেকে বাদ দিয়েছেন তাতে হিরো আলমের দুঃখ আছে। হিরো আলমকে সবাই ব্যবহার করছে, আমার