1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
জবির লিফট যেন মরণ ফাঁদ! - ২৪ ঘন্টাই খবর

জবির লিফট যেন মরণ ফাঁদ!

  • আপডেট করা হয়েছে: বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১০৫ বার পঠিত

সুউচ্চ কিংবা বহুতল ভবনের উপরে উঠতে গেলে আমাদের মনের উদীয়মান প্রথম প্রশ্নটি হলো লিফট অর্থাৎ লিফট হচ্ছে বহুতল ভবন বেয়ে উপরে উঠার এক সস্তির নাম। কিন্তু সেই সস্তিই যদি হয় শিক্ষার্থীদের মরন

ফাঁদ তাহলে বিষয়টি নিশ্চিই হতাশা জনক। সম্প্রতি যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে লিফটে আটকা পড়ে, লিফট থেকে উদ্ধার হলো জবির ১০ শিক্ষার্থী। গত সোমবার (১২ই সেপ্টেম্বর) লিফটে আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের উদ্ধারের

একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। ভিডিওটিতে দেখা যায়, লিফটের ভেতরে আটকে থাকার পর লিফট পরিচালনার দায়িত্বে থাকা কয়েকজন ব্যক্তি দ্রুত

দরজার একাংশ খুলতে সক্ষম হন। এরপর আস্তে আস্তে লিফটে আটকে থাকা শিক্ষার্থীদের চেয়ারের সাহায্যে নামিয়ে আনতে সক্ষম হন তারা। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উপর ক্ষোভ প্রকাশ

করতে দেখা যায়। বিবিএ ভবন জবির ১৩তলা বিশিষ্ট এক সুউচ্চ বহুতল ভবন। প্রায় ২২ হাজার শিক্ষার্থীসম্পন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় যার প্রায় অর্ধ শতাংশ শিক্ষার্থী সংখ্যার হিসেবে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষার্থী প্রতিদিন ক্লাস এবং প্রয়োজনীয় কাজে

উঠানামা করে বিবিএ ভবনে। সরজমিন ঘুরে দেখা যায়, এই হাজার হাজার শিক্ষার্থীর জন্য জবির নতুন একাডেমিক ভবনে রয়েছে মাত্র চারটি লিফট, যার একটি আবার রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের

জন্য। সেই হিসেবে হাজার হাজার শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে মাত্র তিনটি লিফট যেগুলোর প্রায় সময়ই যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে অকেজো হয়ে থাকে একটি দুটি। যার ফলে প্রায় সময় ঝুঁকি নিয়েই লিফটে চলাচল করতে হয় জবি

শিক্ষার্থীদের। এ বিষয়ে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী বলেন, প্রতিদিন হাজার হাজার ছাত্রছাত্রী এই লিফট ব্যবহার করে। অথচ বেশির ভাগ সময়ই নস্ট থাকে। আবার

সচল থাকলেও নানারকম ভোগান্তি। এখন কি একজন দুজন আটকা পরে না মরলে প্রশাসনের হুস হবে না? লিফটে আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের বের করে আনা হচ্ছে। লোকপ্রশাসন

বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের আরেক শিক্ষার্থী বলেন, একবার আমিও এভাবে আটকে পরছিলাম। তখন ফ্যানও ছিল না। অনেকক্ষণ আটকে থাকার পরে ঠিক এভাবে বের হয়েছিলাম।

হাস্যকর বিষয় হচ্ছে কয়েক হাজার শিক্ষার্থীর জন্য মাত্র তিনটি লিফট যার দুটিই আবার অচল। আল্লাহ না করুক বড় কোনো ক্ষতি হওয়ার আগে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। নাহলে কোনো

অঘটন ঘটে গেলে এর পুরো দায় নিতে হবে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষকে। চিপ ইঞ্জিনিয়ার হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী বলেন,’সাময়িক সমস্যার জন্য আমরা খুবই দুঃখিত। নষ্ট হওয়া দুটি

লিফটের মধ্যে আমরা একটি অলরেডি ঠিক করেছি, অন্যটি ঠিক করার জন্য আমরা একটি কোম্পানির সাথে চুক্তি করতেছি আশাকরি চুক্তি সম্পন্ন হলে দ্রুত সমস্যাটি সমাধান হয়ে যাবে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com