1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
চাঞ্চল্যকরঃ ‘সময় বিভ্রাটে’ দুইবার পরীক্ষা দিলেন শিক্ষার্থীরা - ২৪ ঘন্টাই খবর

চাঞ্চল্যকরঃ ‘সময় বিভ্রাটে’ দুইবার পরীক্ষা দিলেন শিক্ষার্থীরা

  • আপডেট করা হয়েছে: শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১০৪ বার পঠিত

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার প্রথমদিনে একটি কেন্দ্রে নির্ধারিত সময়ের আধাঘণ্টা আগেই উত্তরপত্র নিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। পরে পরীক্ষার্থীদের প্রতিবাদের মুখে প্রায় ২০ মিনিট পর আবারও বাকি সময়ের

পরীক্ষা নেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) উপজেলা সদরের হোসেনপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে তিনজন হল সুপারকে পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

জানা গেছে, ‘হোসেনপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে এসএসসি ভোকেশনালের ১৭৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। বেলা ১১টায় পরীক্ষা শুরু হয়। দুই ঘণ্টা পর দুপুর ১টায় পরীক্ষা শেষ হওয়ার

কথা ছিল। কিন্তু কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ নির্ধারিত সময়ের ৩০ মিনিট আগে সাড়ে ১২টায় পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে উত্তরপত্র নিয়ে যান। এতে ওই কেন্দ্রে হট্টগোল সৃষ্টি হয়। পরীক্ষার্থীরা এ ঘটনার প্রতিবাদ করে। পাশাপাশি তারা বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা

নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানান।’স্থানীয়া জানিয়েছেন, ‘খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওই কেন্দ্রে গিয়ে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন পরীক্ষার সময় দুই ঘণ্টা। কিন্তু কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ ভুল করে দেড় ঘণ্টা পর উত্তরপত্র নিয়ে যায়। পরে

বিদ্যালয় মাঠে ও আশপাশে থাকা সব পরীক্ষার্থীদের জড়ো করে প্রায় এক ঘণ্টা পর আবারও প্রশ্ন ও উত্তরপত্র দিয়ে অবশিষ্ট ৩০ মিনিটের পরীক্ষা নেওয়া হয়।’এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র

সচিব কাজী আছমা বেগম বলেন, ‘রুটিনে পরীক্ষার সময় ও মানবণ্টনে বিশেষ নির্দেশাবলীতে লেখা রয়েছে, ২ ঘণ্টার পরীক্ষা ১.৩০ ঘণ্টা এবং ৩ ঘণ্টার

পরীক্ষা ২ ঘণ্টা সময়ে অনুষ্ঠিত হবে। আবার লেখা রয়েছে, প্রশ্নপত্রে উল্লেখিত সময়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।’তিনি আরও বলেন, ‘প্রশ্নপত্রে যে সময় নির্ধারণ করা আছে,

যদি সেটাই হয়, তাহলে কেন ৩ ঘণ্টার পরীক্ষা ২ ঘণ্টা আর ২ ঘণ্টার পরীক্ষা ১.৩০ ঘণ্টা লিখতে হয়। মূলত রুটিনের এ অস্পষ্টতার কারণেই কক্ষ পরিদর্শকেরা ভুলটি করেন।’কিশোরগঞ্জের

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) ফারজানা খানম বলেন, ‘আমার জানামতে, ইতিমধ্যে ৩০ মিনিট করে বঞ্চিত পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা পুনরায় নেওয়া হয়েছে। তবে ইউএনওর প্রতিবেদন অনুযায়ী বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com