1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
ওবায়দুল কাদের সাহেব, আরে নেতা তো একজন বাংলাদেশে’ - Online newspaper in Bangladesh

ওবায়দুল কাদের সাহেব, আরে নেতা তো একজন বাংলাদেশে’

  • আপডেট করা হয়েছে: বৃহস্পতিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৩৬ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা: আপনাদের নেতা কে’- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এই বক্তব্যের জবাব দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে গতকাল (মঙ্গলবার) আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় ফখরুলকে উদ্দেশ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, গতবার তো কামাল হোসেনকে এনে আপনারা নির্বাচনে নেতা বানিয়েছিলেন। আমার দলের পক্ষে, জোটের পক্ষে আমি বলতে চাই- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী নির্বাচনে আমাদের নেতা।

আপনাদের নেতা কে? টেমস নদীর পার থেকে পলাতক দণ্ডিত ব্যক্তি কি নির্বাচনে আপনাদের নেতা! পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী এ পরিচয় বহন করলে বাংলাদেশে আপনাদের (বিএনপি) অপ্রাসঙ্গিক রাজনীতি আরও অপ্রাসঙ্গিক হয়ে যাবে। জনগণ দণ্ডিত পলাতক নেতাকে (তারেক রহমান) কোনোদিনই এদেশের নির্বাচনে নেতা হিসেবে মেনে নেবে না।

আজ বুধবার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির এক অনুষ্ঠানে ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, নেতার কথা বলে ওবায়দুল কাদের (আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক) সাহেব। আরে নেতা তো একজন আমাদের বাংলাদেশে- দেশনেত্রী খালেদা জিয়া। তিনিই একমাত্র নেত্রী যিনি এই দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এখনো গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করতে গিয়ে, লড়াই করতে গিয়ে, গৃহে অন্তরীণ হয়ে আছেন। মিথ্যা মামলা দিয়ে তাকে বেআইনিভাবে সাজা দেওয়া হয়েছে।

ফখরুল বলেন, এখনো ঘরে ঘরে গিয়ে পুলিশি আক্রমণ চলছে, হয়রানি হচ্ছে, তল্লাশি চলছে। কেন, কারণ কী? কারণ বিএনপি জেগে উঠছে। আজকে এই যে আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সাহেবের তত্ত্বাবধায়নে নতুন করে বিএনপিকে সাজানো হচ্ছে, কমিটি গঠন করা হচ্ছে। এতে করে নতুন জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে, নতুন প্রাণের সৃষ্টি হয়েছে।

‘আর সেই জন্যেই আজকে তাদের (সরকার) হৃদকম্প শুরু হয়েছে। তারা ভয় পেয়েছে, কাঁপছে। এজন্য তারা বিএনপির ওপরে চড়াও হয়ে আক্রমণ করছে। স্পষ্ট করে বলতে চাই, পৃথিবীতে কোনো স্বৈরাচার, কোনো একনায়ক, কোনো ফ্যাসীবাদী শাসক বা কোনো অত্যাচারী শাসক কোনোদিনই টিকে থাকতে পারেনি। জনতার উত্তাল রোষের মধ্য দিয়ে তাদেরকে পরাজয় বরণ করতে হয়েছে। তখন আর তাদেরকে খুঁজে পাওয়া যায় না।’

সরকারের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, এখনো সময় আছে, আপনারা দেওয়ালের লিখনগুলো পড়ুন, মানুষের চোখের ভাষা দেখুন, মানুষের মনের কথা বুঝার চেষ্টা করুন। এখনো সময় আছে, পদত্যাগ করুন আপনাদের ব্যর্থতার জন্য, পদত্যাগ করুন আপনারা যে অপরাধ করেছেন সংবিধানকে লঙ্ঘন করে জনগণের ভোটের অধিকারকে বন্ধ করে দিয়ে, আগের রাত্রে ভোট নিয়ে চুরি করে আপনারা যে অপরাধ করেছেন, সেখানে থেকে যদি রক্ষা পেতে চান অবিলম্বে পদত্যাগ করুন।

একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিয়ে জনগণ যাতে তাদের পছন্দ মতো সরকার নির্বাচন করতে পারে- সেই ব্যবস্থা করুন। অন্যথায় পালাবার পথ খুঁজে পাবেন না।

জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে মহানগর দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে করোনা ও ডেঙ্গি হেলপ সেন্টারের কার্য্ক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষে এই অনুষ্ঠান হয়। বিএনপি মহাসচিব এই কার্য্ক্রমের উদ্বোধন করেন।

মহানগর দক্ষিণ করোনা হেলপ সেন্টার পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক মোশাররফ হোসেন খোকনের সভাপতিত্বে ও মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম মজনুর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম, কৃষক দলের সভাপতি হাসান জাফির তুহিন ও মহানগর দক্ষিণের সহ-সভাপতি নবী উল্লাহ নবী বক্তব্য দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2021
Site Developed By Bijoyerbangla.com