1. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
এবার পরিমাপে তেল কম দেওয়ায় পেট্রল পাম্পের সামনে যুবকের অবস্থান - ২৪ ঘন্টাই খবর
শিরোনাম:
‘বাজ’ হয়ে উড়া ইংল্যান্ডকে মাটিতে আছড়ে ফেললো প্রোটিয়ারা এবাদতের ঝড় বলে আউট হওয়ার পর ফর্ম হারিয়ে সেঞ্চুরি বিহীন ১০০০ দিন! ‘পাকিস্তানের কাছে নাকানিচুবানি খাওয়ার পর বদলে গেছে ভারত’ মাত্র পাওয়াঃ এটিই দুর্দশার শেষ মাস, আগামী মাস থেকে উন্নয়নঃ পরিকল্পনামন্ত্রী পারফর্মের জড় উঠিয়ে ১১০ বছরের রেকর্ড ভেঙে অ্যান্ডারসনের ইতিহাস গরম খবরঃ বাড়াবাড়ি কইরেন না, মা বইলা গো কওয়ার সুযোগ পাবেন না: শামীম ওসমান শক্তির দাপট দেখিয়ে এশিয়া কাপে নতুন অস্ত্র নিয়ে রশিদ খান মাত্র পাওয়াঃ আমি মোমেনকে ভালোবাসি: আসিফ নজরুল ভয়ঙ্কর ‘কালাপানি গ্যাংস্টার’, নাম সুনলেই আতংক অস্ত্র হাতে মহড়া! কোচ যেই থাকুক, সাকিবের কাছে থাকবে সেই অনন্য ক্ষমতা

এবার পরিমাপে তেল কম দেওয়ায় পেট্রল পাম্পের সামনে যুবকের অবস্থান

  • আপডেট করা হয়েছে: সোমবার, ১ আগস্ট, ২০২২
  • ৭৪ বার পঠিত

পরিমানে কম তেল দেয়ায় ‘সঠিক পরিমাণে তেল চাই’ প্ল্যাকার্ড নিয়ে রাজধানীর কল্যাণপুরে একটি সার্ভিস স্টেশনের সামনে অবস্থান নিয়েছেন এক যুবক। তাঁর নাম শেখ ইসতিয়াক আহমেদ। তিনি একটি

বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা। মাপে তেল কম দেওয়ার অভিযোগে আজ সোমবার (১ আগস্ট) বেলা ১১টা থেকে প্ল্যাকার্ড হাতে অবস্থান করছেন তিনি। এসময় অভিযোগকারী

যুবক ইসতিয়াক আহমেদ বলেন, আমি এখানে আছি, দেখি কতক্ষণ পর্যন্ত থাকা যায়। অফিসে কাজ রেখে এসেছি, যাওয়া লাগতে পারে। যদি সেখানে যাই, তারপর আবার

এসে দাঁড়াব। কিন্তু আমি চলে যেতে চাই না। কারণ আমার বাইকে ৫০০ টাকায় যে পরিমাণ তেল দেওয়া হয়েছে, আমি তা সবাইকে দেখাতে চাই। আমার বাইক থেকে তেল নামাবে তারা। আমি

এখন পর্যন্ত গাড়ি স্টার্ট দিইনি। আমি এটা প্রমাণ করতে চাই যে, আমি বিন্দুমাত্র মিথ্যা বলছি না। তিনি আরো জানান, শ্যামলীর আদাবরের বাসা থেকে সকাল ১০টার দিকে মিরপুরের

বিআরটিএ কার্যালয়ে যাওয়ার পথে ৪ নম্বর দক্ষিণ কল্যাণপুরের সোহরাব সার্ভিস স্টেশন থেকে ৫০০ টাকার অকটেন নিই। কিন্তু সামনে মিটার থাকলেও তেল সরবরাহকারী

আকাশ তাকে পেছনে আসতে বলেন। এতে তিনি গাছের আড়ালে পড়লে তাকে তেল দেওয়া হয়। তিনি বুঝতে পারেন, তাকে তেল দিতে কারসাজি করা হয়েছে। ৫০০ টাকার

ভাউচার পেলেও সঠিক পরিমাণে তেল পাননি। বেসরকারি ব্যাংকের এই কর্মকর্তা জানান, তার মোটরসাইকেলের রিজার্ভেও তেল ছিল না। তাই তিনি ডিপো কর্তৃপক্ষকে মোটরসাইকেল থেকে তেল বের করে মাপার

কথা বলেন। কিন্তু তারা তার দাবিকে পাত্তা দেয়নি। এরপর বেলা ১১টা থেকে ‘সঠিক পরিমাণে তেল চাই’ প্ল্যাকার্ড নিয়ে অবস্থান করছেন তিনি। অবস্থান করার পড়ে

থেকেই তাকে বিভিন্ন ধরনে হুমকি দেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি। ইসতিয়াক বলেন, সকাল থেকে আমি এখানে অবস্থান নিয়েছি। এর মধ্যে কয়েকজন এসে আমাকে

ইনডিরেক্টলি থ্রেট দিয়েছে। প্রশাসনের একজন লোক এসেছিলেন। তিনি কথা বলে চলে গেছেন। আমি বলেছি ভোক্তা অধিকারে লিখিত অভিযোগ দেব। একা থাকার কারণে সেটা পারছি না। আজকে

যদি সম্ভব না হয়, কালকে অবশ্যই অভিযোগ দেব। তিনি বলেন, তারা (সোহরাব সার্ভিস স্টেশনের কর্তারা) আমাকে বলেছে, তাদের ভুল হয়েছে। আমার সঙ্গে যারা তেল নিতে এসেছিল, তাদের

অনেকেই জানিয়েছে এমনটা প্রতিদিনই হয়। আমি কিছু করলে তারা আমার সঙ্গে থাকবেন বলেও জানিয়েছেন। আমি চাই, বাংলাদেশের আর কোনো মানুষ যাতে এভাবে প্রতারিত না হয়। বিষয়টি

প্রতিদিন হচ্ছে। আমরা নাগরিকরা যাতে আরও সচেতন হই, আমরা যেন অধিকারগুলো আদায় করে নিতে পারি; সেজন্যই আমার এখানে দাঁড়ানো। সোহরাব সার্ভিস স্টেশনের

ম্যানেজারের দাবি, তারা তিন মাস থেকে এটি চালাচ্ছেন। ফলে ডিপোর পুরোনো কর্মচারীরা রয়ে গেছেন। তাদের একজন এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। বিষয়টি দেখা হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com