1. atikurrahman0.ar@gmail.com : MD : MD Atikurrahaman
  2. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  3. mbbrimon@gmail.com : MBB Rimon : MBB Rimon
  4. shamimulislamtanvirrana@gmail.com : MD Tanvir Islam : MD Tanvir Islam
  5. shafiulislamtanzil@gmail.com : Safiul Islam Tanzil : Safiul Islam Tanzil
 
সর্বশেষঃ
অসহায় ও গৃহহীন ৬৬ হাজার পরিবারকে ঘর দিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গরিব তবুও দাদার শেষ ইচ্ছা পূরনে ১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা দিয়ে হেলিকপ্টারে বিয়ে বাজারে জমিদাতা পিতার জামে মসজিদের মিনার ভেঙ্গে দিল সন্তান! এবার করোনা ধ্বংসকারী নাকের স্প্রে আবিস্কার করল বাংলাদেশ রাতে ভাত না খেয়ে রুটি খাওয়ার উপকারিতা কারাগারে নারীর সাথে কয়েদির সময় পার : ৩ জনকে প্রত্যাহার ভারত থেকে ভ্যাক্সিন যারা নিয়ে আসছে তাদেরকেই আগে প্রয়োগ করা হোক: মুফতি ফয়জুল করিম এবার ধর্মীয় আলোচনায় এলো বাধা: তৌহিদী জনতার স্লোগানে প্রকম্পিত ময়মনসিংহ এবার আশুলিয়ায় শিশু ধ’র্ষণের অভিযোগে এক মাদ্রাসার অধ্যক্ষ গ্রেপ্তার এবার রংপুরে নির্মিত হচ্ছে ‘আল্লাহু লেখা স্তম্ভ’

এবার একবার নাকে ড্রপ দিলে দুই দিন করোনা থেকে রক্ষা

  • প্রকাশিত: ১১:৫৫ am | বুধবার ২৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৬৪ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা:
এবার একবার নাকে ড্রপ দিলে দুই দিন করোনা থেকে রক্ষা।করোনা রোধে বিজ্ঞানীরা নতুন এক ড্রপ বের করতে যাচ্ছেন। একবার নাকে দেয়া হলে তা পরের দু’দিন

ব্যবহারকারীকে করোনা থেকে রক্ষা করতে সক্ষম। এমন একটি নাকের ড্রপ খুব শিগগিরই বাজারে আসছে। ব্রিটেনে এই ড্রপটি তৈরি করার রাসায়নিক উপাদান

ইতোমধ্যে অনুমোদন করা হয়েছে। ল্যাবের গবেষণায় এটা ইতোমধ্যে প্রমাণিত হয়েছে, এই স্প্রে শরীরে করোনাভাইরাস সংখ্যা বৃদ্ধিতে বাধা দিতে পারে।এ বিষয়ের

প্রকাশিত একটি গবেষণা রিপোর্টের মূল লেখক ড. রিচার্ড মোকস বলেন, এই স্প্রে বাজারে পর্যাপ্ত পরিমাণে থাকা পণ্য থেকে তৈরি করা হয়েছে এবং এটা ইতোমধ্যে নানা ধরনের ওষুধ ও খাদ্যপণ্যে ব্যবহার করা

হচ্ছে। এই স্প্রেটি আমাদের নিজেদের গবেষণা অনুসারে তৈরি করা হয়েছে ওষুধ এবং খাদ্যপণ্যের রাসায়নিক থেকে। ড. মোকস বলেন, উপযুক্ত অংশীদার (বাণিজ্যিক বিনিয়োগকারী) পেলে আমরা সপ্তাহের মধ্যে মানুষের ব্যবহারের জন্য

স্প্রেটি তৈরি করতে সক্ষম হবো।’
স্প্রেটিতে পলিসেকারাইড গাম (এক ধরনের আঠালো পদার্থ) মিশিয়ে দেয়া হবে এবং স্প্রে করা হলে নাকের ভেতরে চারপাশে কুয়াশার মতো বিন্দু বিন্দু পানির মতো

ছড়িয়ে থাকবে। স্প্রেটির রাসায়নিক উপাদান করোনাভাইরাসকে হয় খাঁচার মধ্যে বন্দী করে ফেলবে অথবা নাকের বাইরে বের করে দেবে। ব্রিটেনের ইউনিভার্সিটি অব

বার্মিংহামের গবেষকেরা বলেন, এটা উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ পরিস্থিতি অথবা ক্লাসরুমে অথবা স্বাস্থ্যকর্মী অথবা বিমানে ব্যবহার করা যাবে।
বিজ্ঞানীরা বলছেন, যেখানে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার উচ্চ ঝুঁকি রয়েছে সেখানে করোনা

প্রতিরোধে প্রচলিত ব্যবস্থা যেমন : ফেস মাস্ক ব্যবহার, হাত ধোয়া এবং একজন থেকে আরেকজনের নির্দিষ্ট দূরত্ব (সোস্যাল ডিস্ট্যান্স) বজায় রাখার পাশাপাশি ব্যবহার করা যাবে। ড. মোকস বলেন, তবে

করোনা প্রতিরোধের প্রচলিত ব্যবস্থাকে উপেক্ষা করা যাবে না। প্রচলিত ব্যবস্থায় এগুলোই ভাইরাস প্রতিরোধে প্রধান ভূমিকা পালন করবে। স্প্রে করার পরও ওই প্রচলিত ব্যবস্থাকে বাদ দেয়া যাবে না। তিনি

বলেন, এই স্প্রেটিকে দ্বিতীয় স্তরের ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া প্রতিরোধে ব্যবহার করতে হবে। ডেইলি মেইল তাদের রিপোর্টে বলেছে, ‘বায়োআরএক্সআইভি’ সার্ভারে এ সংক্রান্ত গবেষণার একটি প্রি প্রিন্ট পাওয়া