1. atikurrahman0.ar@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. Mijankhan298@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  3. rabbimollik2002@gmail.com : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. msthoney406@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. abur9060@gmail.com : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
উপকারী টিপস: নিজের সন্তানকে পড়াশোনায় মনোযোগী করার কিছু উপায়! - ২৪ ঘন্টাই নিউজ
শিরোনাম:
শেষমেষ ‘স্ট্যাটাস দিয়ে প্রমাণ দিতে হলো আমি বেঁচে আছি’ ফের যে সিদ্ধান্ত নিলো এমবাপ্পে, পারিশ্রমিক সপ্তাহে ১১ কোটি টাকা! সুখবর: উসমান খাজা বাবর আজমদের মত এমন ৮ জন বাঘা বাঘা ক্রিকেটাদের পেছনে ফেলে আবারো নতুন রেকর্ড গড়লেন ব্রেকিং নিউজঃ একটি প্লাস্টিকের বালতির দাম ২৬ হাজার টাকা! দুঃসংবাদঃ আইপিএল শেষ না হতেই, বিশাল মোটা অঙ্কের আর্থিক প্রতারণার শিকার হলেন মুস্তাফিজের অধিনায়ক পন্থ! অর্থ আত্মসাৎ করার অপরাধে সোনালী ব্যাংকের সাবেক এমডিসহ ৯ জনের কারাদণ্ড বিশ্ব এখন নতুন স্নায়ুযুদ্ধের হুমকির মুখে জানালেন জাতিসংঘ মহাসচিব যে কোনো সময় এবং যে কারণে গ্রেপ্তার হতে পারেন ইমরান খান ১৪ বছরের আইপিএল ইতিহাসে এই রেকর্ডটি শুধুই বাংলার বাঘ মুস্তাফিজের, নেই আর কারও রাজধানীতে আবারও স্বস্তির পরশ বুলিয়ে এক পশলা বৃষ্টি

উপকারী টিপস: নিজের সন্তানকে পড়াশোনায় মনোযোগী করার কিছু উপায়!

  • আপডেট করা হয়েছে: শুক্রবার, ৬ মে, ২০২২
  • ৯৫ বার পঠিত

বর্তমানে তথ্য ও প্রযুক্তির এই যুগে বাচ্চাররামোবাইল, ল্যাপটপ, গেমস ইত্যাদি নিয়েই বেশি ব্যস্ত থাকতে পছন্দ করে। বাবা মা হিসেবে আমরা স’ন্তানদের পড়ায় মনোযোগী করে তুলতে কিছু সাহায্য করতে পারি। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কীভাবে বাচ্চাদের পড়ায় আরো

মনোযোগী করে তোলা যায়… আনন্দময় করে তুলে: শিশুরা আনন্দ চায়। পড়াশোনা ও যদি আনন্দময় হয়ে ওঠে তবে তা করতে আগ্রহী হবে আপনার সন্তান। এ কাজটি করার সময় আপনার আচরণ‌ই আসল ভূমিকা পালন করে। লেখাপড়া মজাদার ভাবে উপস্থাপন

করুন। শিশুটি মজা করার আদলে পড়ার কাজটি সারবে। সঠিক উপায়ে বেছে নিন: বেশিরভাগ সময় বাচ্চারা মনে করে, লেখাপড়া অন্যান্য ব্যস্ত কাজের মত একটি কষ্টকর কাজ। তারা তো বুঝে না যে তাদের বড় হয়ে বড় কিছু হতে হলে পড়তে হবে। তাই আপনি যদি শিক্ষা অর্জনের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে লেকচার শুরু

করেন তবে তারা একে আরো বিরক্তিকর মনে করবে। তাদের জিজ্ঞাসা করুন, তাদের কি করতে ভালো লাগে? সেই ভালো লাগার সঙ্গে লেখাপড়া কে যোগ করে বোঝানোর চেষ্টা করুন। একটু বুদ্ধি খাটিয়ে বোঝালেই শিশুরা বোঝে। পুরস্কৃত করুন: পড়ার জন্য ছোটদের পুরস্কৃত

করুন। ঠিকমতো পড়লে দুটো চকলেট কি মন্দ হয়? অ থবা একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত পড়লে ৫ মিনিট খেলার সুযোগ। আর এসবের লোভে ঝটপট পড়ার কাজটা সেরে নেবে বাচ্চারা। টাইম ঠিক করে নিন: প্রতিদিনের নির্দিষ্ট কাজের জন্য নির্দিষ্ট সময় ঠিক করে নিন।

বিশেষজ্ঞরা বলেন প্রতি রাতে হোমওয়ার্কের জন্য ৪৫ মিনিট যথেষ্ট সময়। শিশুকে বলুন যে, তার পড়ার কাজটি অসীম সময় পর্যন্ত নয়। ঘড়িতে অ্যালার্ম দিয়ে বলুন, এটা বেজে ওঠার আগ পর্যন্ত তাদের পড়তে হবে তার বেশি নয়। প্রশংসা করুন: ছোট বা বড় যে

কাজই করুক না কেন শি’শুটিকে উৎসাহ দিন। শিশুরা প্রশংসা বা উৎসাহ পেতে দারুন ভালবাসে। কাজেই পড়াশোনার কারণে যদি এ প্রশংসা পাওয়া যায় তবে তা করতে পিছপা হয় না তারা। আপনার পড়া দেখে শিশুটিও তার পড়া পড়তে উৎসাহ বোধ করবে। আর তার নিজের পড়াটা নিজের করাই উত্তম।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com