1. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
উত্তাল কুমিল্লা,হিন্দুদের পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআনকে অবমাননা! - ২৪ ঘন্টাই খবর
শিরোনাম:
প্রকাশ হলো বাংলাদেশ সময়ে এশিয়া কাপের সূচি! অবশেষে স্ত্রী হ,ত্যার দায় স্বীকার করলেন রেজা এবার সিরাজগঞ্জে ৬০ বছরের বৃদ্ধ ৭ বছরের এক শিশু ধ,র্ষণ চেষ্টায় আটক চাঞ্চল্যকরঃ নতুন করে বাঁচতে শেখার সেই স্বপ্ন ভেঙে চুরমার করল কে? দারুণ লড়াইয়ের পরও উইন্ডিজে দুই টেস্টই ড্র করল বাংলাদেশ ‘এ’ দল রহস্যঃ যেভাবে উদ্ধার হলো আলোচিত শিক্ষিকা খাইরুন নাহারের ম,রদেহ অবিশ্বাস্য মনে হলেও সত্য, ওপেনার ছাড়া এশিয়া কাপের দল! অসাধারণ পার্ফমেন্স করে আসামে যুবাদের হ্যাটট্রিক জয় মাত্র পাওয়াঃ খাইরুন নাহারের আত্মহ,ত্যার পর যে দাবি জানালেন কলেজছাত্র স্বামী যে কারণে এত বিতর্কের পরও সাকিবই বার বার বিসিবির ‘সেরা পছন্দ’!

উত্তাল কুমিল্লা,হিন্দুদের পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআনকে অবমাননা!

  • আপডেট করা হয়েছে: বুধবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২১
  • ৪৭৫ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা:
কুমিল্লা শহরের নানুয়া দীঘির উত্তরপাড় পূজা মন্ডপে প্রকাশ্যে কুরআনে কারিমকে মূ”র্তির পায়ে রেখে অসম্মান করার অভিযোগ উঠেছে।জানা যায়,কোরআন অবমাননা ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় সাধারণ জনতার মাঝে ক্ষোভ বাড়তে

থাকে। পরবর্তীতে কুমিল্লা জেলার এসপি, ডিসি, পূজা কমিটি এবং উলামায়ে কেরাম বৈঠকে বসে। বৈঠকে পূজা কমিটিও এতে সম্মত হয় যে এই ঘটনার কারনে অন্তত এই বছর পূজা বন্ধ করে দেওয়া হবে। তবে কয়েকজন চাচ্ছে পূজা স্বাভাবিকভাবে চালিয়ে যেতে।অন্যদিকে সাধারণ

মানুষের ক্ষোভ বাড়তে থাকে। বেলা যতই বাড়ছে— সাধারন মানুষের সমাগম ততই বাড়তেছিল। অবশেষে পূজা মন্ডপ এরিয়ার চতুর্দিকে সহস্রাধিক জনতা জড়ো হয়ে যায়৷ এত বড় অপরাধের পর এবং পূজা বন্ধ না করে চালিয়ে যাবার ধৃষ্টতা দেখাতে চায় প্রশাসনের কতিপয় লোকজন।

সেখানে থাকা উলামায়ে কেরাম সাধারণ জনতাকে শান্ত করার চেষ্টা করতে থাকেন। পূজা বন্ধ না করে চালিয়ে যাবার কা’রনে সাধারণ জনতার উত্তেজনা বাড়তে থাকে।অবশেষে সেখানে পুলিশ গুলাগুলি করে। পুলিশের গুলিতে অনেক সাধারণ জনতা আহত হন বলে খবর পাওয়া যায়।

কুরআনে কারিমের অপমান করে এতবড় কান্ড ঘটানোর পরও পূজা মন্ডপের পূজা বন্ধ না করে উলটো ক্ষোভরত জ’নতার উপর পুলিশি হামলার নিন্দা জানিয়েছেন এলাকাবাসি। তারা বলেন,

আজকে যদি কোনো মাসজিদের ভিতরে নিয়ে মূর্তি পোড়া হতো তাহলে সেই মাসজিদ কমিটির ১৪ গুষ্টির জে’ল হতো। আদৌ সেই মাসজিদে নামাজ পড়ার অনুমতি হতো কিনা সেটা সন্দেহ আছে বলেও বন্তব্য করেন অনেকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com