1. atikurrahman0.ar@gmail.com : MD : MD Atikurrahaman
  2. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  3. mbbrimon@gmail.com : MBB Rimon : MBB Rimon
  4. rujina666666@gmail.com : Rujina Akter : Rujina Akter
  5. shamimulislamtanvirrana@gmail.com : MD Tanvir Islam : MD Tanvir Islam
  6. shafiulislamtanzil@gmail.com : Safiul Islam Tanzil : Safiul Islam Tanzil
 
সর্বশেষঃ
ইএফটিতে এবার বেতন পাবেন মাদরাসার শিক্ষকরা ৩০ /৩২টা মেয়েকে থুয়ে সে আমাকে চায়,আর আমি একটা স্বামীকে ছাড়তে পারবো না! মাকে হ’ত‌্যার পর তার লা’শ বস্তায় ভরে পুকুরে ফেলে : ছেলেসহ আটক ২ সঠিক নিয়মে ছাড়াছাড়ি না হলে তামিমার বিয়ে বৈধ নয়: শায়খ আহমাদুল্লাহ এবার অনলাইনে ক্লাস করেই কুরআন হিফজ করলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৮৫ জন শিক্ষার্থী Kc ছেলেদের সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় বাবাকে শিকলে বেঁধে রাখে নির্যাতন শহীদ মিনারে পবিত্র কুরআন খতম করলো এবার ইশা ছাত্র আন্দোলন এবার নওমুসলিম নারীকে দিয়ে দেহব্যবসা, কাউন্সিলর রিমান্ডে আগের স্বামীকে তালাক না দিয়েই ৮ বছরের ছোট মেয়েকে রেখে ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে

অবৈধ সম্পদ অর্জনে সাবেক ওসি হরেন্দ্র নাথ সরকার ও তার স্ত্রী কৃষ্ণা রানীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা!

  • প্রকাশিত: ০৩:৩৮ am | শুক্রবার ২২ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৪৩ বার পঠিত

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ অবৈধ সম্পদ অর্জনে সাবেক ওসি হরেন্দ্র নাথ সরকার ও তার স্ত্রী কৃষ্ণা রানীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা!ঝিনাইদহের এক সময়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেন্দ্র নাথ সরকার এবং তার স্ত্রী কৃষ্ণা রানী অধিকারীর বিরুদ্ধে তিন কোটি টাকার

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ এনে পৃথক দুটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ওসি হরেন্দ্র নাথ সরকার এবং তার স্ত্রী কৃষ্ণারানী অধিকারীর বাড়ি সাতক্ষীরার আশাশুনি বাশীরামপুর গ্রামে। সাবেক ওসি হরেন্দ্র বর্তমানে রাঙামাটি

পুলিশের বিশেষ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (পিএসটিএস) পরিদর্শক। কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. নাছরুল্লাহ হোসাইন বাদী হয়ে মামলা দুটি করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, ওসি হরেন্দ্র নাথ সরকার অবৈধ

ভাবে ২ কোটি ৮৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৮৪ টাকা আয় করেছেন। এই টাকার কোনো ব্যাখ্যা তিনি দিতে পারেননি। একই ভাবে তার স্ত্রী কৃ’ষ্ণারানী অধিকারী ৩২ লাখ ৮০ হাজার ৭০৪ টাকার কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেননি। ২০০৪ সালের দুর্নীতি দমন

কমিশন আইনের ২৬(২) ও ২৭(১) ধারা এবং ২০১২ সালের ৪(২) ও ৪(৩) এর মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের মামলা দুটি রজু হয়। মামলার বাদী কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. নাছরুল্লাহ হোসাইন বলেন,

আইন মোতাবেক আসামিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে বর্তমানে রাঙামাটি জেলার পুলিশের বিশেষ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে (পিএসটিএস) কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক হরেন্দ্রনাথ সরকারের সাথে মুঠোফোনে কথা হয়। তিনি জানান, হ্যা, এর আগে দুদক

একটা তদন্ত করেছিলো। তবে মামলা হয়েছে সেটা আমার জানা নাই।প্লিজ দয়া করে বিষয়টি নিউজ টিউজে আইনেন না। উনারা তো আমার ফাইলপত্রও ঠিকভাবে দেখে

নাই। আমাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগও দেই নাই। উনারা আ’ন্দাজে কীভাবে কী করলেন আমি বুঝলাম না।

নিউজটি শেয়ারের অনুরোধ রইলো

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২১ 'বিজয়ের বাংলা'
Developed by  Bijoyerbangla .Com
Translate to English »