1. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  2. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  3. [email protected] : Bijoyerbangla News : Bijoyerbangla News
  4. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
  5. [email protected] : বিজয়ের বাংলা : বিজয়ের বাংলা
অবশেষে বিজ্ঞাপন ছাড়া সম্প্রচারে ফিরলো স্টার জলসাও - ২৪ ঘন্টাই খবর
শিরোনাম:
এবার সিরাজগঞ্জে ৬০ বছরের বৃদ্ধ ৭ বছরের এক শিশু ধ,র্ষণ চেষ্টায় আটক চাঞ্চল্যকরঃ নতুন করে বাঁচতে শেখার সেই স্বপ্ন ভেঙে চুরমার করল কে? দারুণ লড়াইয়ের পরও উইন্ডিজে দুই টেস্টই ড্র করল বাংলাদেশ ‘এ’ দল রহস্যঃ যেভাবে উদ্ধার হলো আলোচিত শিক্ষিকা খাইরুন নাহারের ম,রদেহ অবিশ্বাস্য মনে হলেও সত্য, ওপেনার ছাড়া এশিয়া কাপের দল! অসাধারণ পার্ফমেন্স করে আসামে যুবাদের হ্যাটট্রিক জয় মাত্র পাওয়াঃ খাইরুন নাহারের আত্মহ,ত্যার পর যে দাবি জানালেন কলেজছাত্র স্বামী যে কারণে এত বিতর্কের পরও সাকিবই বার বার বিসিবির ‘সেরা পছন্দ’! মাত্র পাওয়াঃ সেই শিক্ষিকার লা,শ উদ্ধারের পর কলেজছাত্র মামুন আটক একটু সিনিয়র হলেই জায়গা মেলে বাংলাদেশ দলে!

অবশেষে বিজ্ঞাপন ছাড়া সম্প্রচারে ফিরলো স্টার জলসাও

  • আপডেট করা হয়েছে: রবিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২১
  • ২৩৯ বার পঠিত

বিজয়ের বাংলা: ক্লিন ফিড জটিলতায় বাংলাদেশে বন্ধ থাকার পর এক এক করে সম্প্রচারে ফিরছে ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেলগুলো। ক্লিন ফিড বাস্তবায়ন করে বন্ধের ১৪ দিন পর গত ১৫ অক্টোবর বাংলাদেশে সম্প্রচার শুরু করে জি বাংলা।

আর গতকাল শনিবার থেকে সম্প্রচার শুরু করেছে স্টার জলসাও। জি বাংলার মতো তারাও বিজ্ঞাপনমুক্ত (ক্লিন ফিড) অনুষ্ঠান সম্প্রচার করছে, কোনো প্রোমোও দেখানো হচ্ছে না।

অনুষ্ঠানের ফাঁকে বিজ্ঞাপন প্রচার করে- এমন বিদেশি টেলিভিশন চ্যানেল সম্প্রচার করার সুযোগ বাংলাদেশের আইনে নেই। সেই নিয়ম বাস্তবায়নে সরকার কঠোর অবস্থানে গেলে পরিবেশক ও কেবল অপারেটররা গত ১ অক্টোবর জি বাংলা, স্টার জলসা, স্টার স্পোর্টসসহ ৬০ টির মতো বিদেশি চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়।

২০০৬ সালের কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক পরিচালনা আইনের ১৯ (১৩) ধারায় বলা হয়েছে, বিদেশি কোনো চ্যানেলের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন সম্প্রচার বা সঞ্চালন করা যাবে না।

চ্যানেল সম্প্রচার বন্ধের পর পরিবেশকেরা বলেছিলেন, বাংলাদেশের বাজার ছোট। এ কারণে ক্লিন ফিড চ্যানেলের প্রচার করতে চান না ব্রডকাস্টারেরা। আর পরিবেশক বা অপারেটররা বিজ্ঞাপনমুক্ত করে চ্যানেলের সম্প্রচার করবেন—এ সক্ষমতাও তাঁদের নেই।

এর মধ্যে ১৪ দিন বন্ধ থাকার পর ক্লিন ফিড চ্যানেল হিসেবে প্রথম সম্প্রচারে আসে জি বাংলা। আর ১৫ দিন পর সম্প্রচারে এল স্টার জলসা।

জি বাংলা এবং স্টার জলসা বিজ্ঞাপন বিরতির সময় একটি ঘোষণা দিয়ে রাখছে। সেখানে লেখা রয়েছে, ‘সম্মানিত গ্রাহক, বিজ্ঞাপন বিধিনিষেধের জন্য বিজ্ঞাপন সম্প্রচার বন্ধ রয়েছে। বিজ্ঞাপন বিরতি শেষে অতি শিগগিরই আমরা মূল অনুষ্ঠানে ফিরে আসছি। আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য ধন্যবাদ।’

তথ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জি বাংলা, স্টার জলসাসহ এখন বিবিসি, সিএনএন, আল-জাজিরা এইচডি, ডিডব্লিউ, কেবিএস ওয়ার্ল্ড, এআরআই র্যাংগ টিভি, এনএইচকে ওয়ার্ল্ড, সিজিটিএন, রাশিয়া টুডে, ফ্রান্স ২৪, লোটাস, ট্রাভেল এক্সপি এইচডি, আল কোরআন, আল সুন্না, ট্রাভেল এক্সপি ও দূরদর্শন টেলিভিশন বাংলাদেশের দর্শকেরা দেখতে পাচ্ছেন। এর সবই ক্লিন ফিডে প্রচারিত হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন
© All rights reserved 2022
Site Developed By Bijoyerbangla.com